চট্টগ্রাম সোমবার, ১৯ আগস্ট, ২০১৯

সর্বশেষ:

১৪ আগস্ট, ২০১৯ | ৭:২৪ অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

জাকির নায়েকের বহিষ্কার চান মালয়েশিয়ার ৩ মন্ত্রী  

মালয়েশিয়ায় মন্ত্রীসভায় ভারতীয় ইসলামিক বক্তা জাকির নায়েককে স্থায়ীভাবে বসবাসের অনুমতি দেয়ার বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।

আজ বুধবার (১৪ আগস্ট) মন্ত্রিসভার ওই বৈঠকে নায়েকের বিরুদ্ধে জাতিবিদ্বেষী মন্তব্যের অভিযোগ এনে তাকে বহিষ্কারের দাবি জানিয়েছেন দেশটির তিন মন্ত্রী। জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

ভারতে অর্থ পাচার ও বিদ্বেষ ছড়ানোর অভিযোগের মুখে থাকা নায়েক প্রায় তিন বছর ধরে মালয়েশিয়ায় বসবাস করছেন। সেখানে নিজের সাম্প্রতিক এক মন্তব্যে সমালোচনার মুখে পড়েছেন তিনি।

ভারতের সংখ্যালঘু মুসলিমদের থেকে মালয়েশিয়ার সংখ্যালঘু হিন্দুরা ‘১০০ গুণ বেশি অধিকার ভোগ করে’ বলে মন্তব্য করেছিলেন তিনি।

জাতি ও ধর্ম মালয়েশিয়ার একটি স্পর্শকাতর ইস্যু। দেশটির তিন কোটি ২০ লাখ জনসংখ্যার ৬০ শতাংশ মুসলিম। বাকি জনসংখ্যার অধিকাংশই চীনা ও ভারতীয় বংশোদ্ভূত। ভারতীয় বংশোদ্ভূতদের অধিকাংশই হিন্দু।

অভিযোগকারী মালয়েশীয় মন্ত্রীরা বলেছেন, মালয়েশিয়ার মুসলিমদের সঙ্গে অমুসলিমদের দূরত্ব তৈরি করার উদ্দেশে এ মন্তব্য করা হয়ে থাকতে পারে। তবে এ অভিযোগ অস্বীকার করেছেন নায়েক।

এক বিবৃতিতে মালয়েশিয়ার যোগাযোগ ও মাল্টিমিডিয়া মন্ত্রী গোবিন্দ সিং দেও বলেন, ‘আমরা আমাদের অবস্থান জানিয়েছি, তা হলো জাকির নায়েকর বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিয়ে তাকে আর মায়েশিয়ায় থাকার অনুমতি না দেয়া।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমাদের উদ্বেগের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী নোট নিয়েছেন। এই সমস্যা নিয়ে কী করা হবে তা নিয়ে সম্ভাব্য দ্রুত সিদ্ধান্ত নেয়ার বিষয়টি আমরা তার বিবেচনার ওপর ছেড়ে দিয়েছি।’

দেশটির মানব সম্পদমন্ত্রী এম. কুলাসেগারান ও পানি, ভূমি ও প্রাকৃতিক সম্পদমন্ত্রী জাভিয়ার জয়াকুমারও বিবৃতি প্রকাশ করে নায়েককে বহিষ্কারের জন্য প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

নায়েক ভারতে তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগগুলো ধারাবাহিকভাবে অস্বীকার করে আসছেন।

বুধবার এক বিবৃতিতে তিনি বলেছেন, ‘হিন্দু সংখ্যালঘুদের প্রতি মালয়েশীয় সরকারের ইসলামিক ও ন্যায্য আচরণের জন্য আমি তাদের প্রশংসা করলেও সেটিকে প্যাঁচানো হচ্ছে ও রাজনৈতিক ফায়দা ও সাম্প্রদায়িক ভেদ সৃষ্টি করতে ভুলভাবে উদ্ধৃত করা হচ্ছে।’

নায়েকের নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা থাকায় তাকে ভারতে ফেরত পাঠানো যাবে না, মঙ্গলবার মাহাথির এমন মন্তব্য করেছেন বলে মালয়েশিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা বেরনামা তার উদ্ধৃতি দিয়ে জানিয়েছে।

অন্য কোনো দেশ তাকে নিতে চাইলে তাদের স্বাগত জানানো হবে বলে জানিয়েছেন মাহাথির।

পূর্বকোণ/ময়মী

The Post Viewed By: 148 People

সম্পর্কিত পোস্ট