চট্টগ্রাম সোমবার, ২৬ আগস্ট, ২০১৯

সর্বশেষ:

১১ আগস্ট, ২০১৯ | ৯:২৬ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের স্বাস্থ্যবার্তার তথ্য

এডিস মশা বেশি টার্মিনাল ও রেলস্টেশনে

ডেঙ্গুর ভাইরাস বহনকারী এডিস মশার লার্ভা সবচেয়ে বেশি পাওয়া যাচ্ছে পরিত্যক্ত টায়ারে, আর প্রাপ্তবয়স্ক এডিস মশা সবচেয়ে বেশি পাওয়া গেছে বাস টার্মিনাল, বাস ডিপো ও রেলওয়ে স্টেশনে। গত ৩১ জুলাই থেকে গত ৪ আগস্ট পর্যন্ত স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখার করা সর্বশেষ জরিপে এ তথ্য উঠে এসেছে। রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখা রাজধানী ঢাকার ১৪টি এলাকায় এই জরিপ করেছে বলে জানিয়েছেন রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখার পরিচালক অধ্যাপক ডা. সানিয়া তহমিনা। আজ রবিবার ( ১১ আগস্ট) স্বাস্থ্য অধিদপ্তর তাদের ওয়েবসাইটে এ তথ্য প্রকাশ করেছে বলেও জানান ডা. সানিয়া।

ডা. সানিয়া তাহমিনা জানান, গত ৩১ জুলাই থেকে গত ৪ আগস্ট পর্যন্ত বাস টার্মিনাল, রেলওয়ে স্টেশন, বস্তি এলাকা, মেট্রোরেল প্রজেক্ট, পুলিশ লাইন, হাসপাতালসহ মোট ১৪টি এলাকায় চারটি কীটতত্ত্ববিদের দল এই জরিপ পরিচালনা করে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখার ম্যালেরিয়া নিয়ন্ত্রণ ও ডেঙ্গু বিষয়ক কর্মসূচির প্রোগ্রাম ম্যানেজার ডা. এম এম আক্তারুজ্জামান জানান, জরিপটি ছিল আমাদের নিয়মিত কর্মসূচির অতিরিক্ত। জরিপ অনুযায়ী রাজধানী ঢাকার ৯০ শতাংশ স্থানে মশা বেশি, যা কিনা ডেঙ্গু রোগের সংক্রমণকে বাড়িয়ে দেয়।

ডা. আক্তারুজ্জামান জানান, আমাদের এবারের পরিকল্পনা ছিল জরিপের জন্য এমন জায়গা বেছে নেওয়া, যেখানে একটা এডিস মশা অনেক মানুষকে একসঙ্গে কামড়াতে পারে এবং এই রোগ ছড়াতে পারে। সেটা যাচাই করতেই আমরা বাস টার্মিনাল, মেট্রোরেল এলাকাসহ জনবহুল এলাকায় জরিপ করি। এরমধ্যে বাস ডিপো ও টার্মিনালগুলোতে গিয়ে দেখা যাচ্ছে, যত্রতত্র টায়ার পড়ে রয়েছে, আর সব টার্মিনাল ও মেট্রোরেল কর্ম এলাকায় গিয়ে পাওয়া গেছে পানিভর্তি প্লাস্টিক সামগ্রী। এসব জায়গায় এডিসের লার্ভা পাওয়া গেছে। আমাদের পরামর্শ হচ্ছে, সারা বছর ধরেই এসব জায়গা ‘টেককেয়ার’ করতে হবে। তিনি বলেন, আমরা সঙ্গে সঙ্গে এসব বিষয় সিটি করপোরেশনকে জানিয়েছি। সেই সঙ্গে যারা টায়ারের ব্যবসা করেন বা টার্মিনালে দোকানপাট করেন তাদেরও কিন্তু সচেতন থাকতে হবে।

পূর্বকোণ/ এস

The Post Viewed By: 201 People

সম্পর্কিত পোস্ট