চট্টগ্রাম রবিবার, ১৮ আগস্ট, ২০১৯

সর্বশেষ:

১৭ জুলাই, ২০১৯ | ১:৪৮ পূর্বাহ্ণ

পে ইট ফরোয়ার্ডের দ্বিতীয় জন্মোৎসব উদযাপিত নিজস্ব প্রতিবেদক

টাকার অভাবে যেসকল শিক্ষার্থীদের পড়াশোনা বন্ধ হয়ে যায় তাদের আর্থিক সাহায্যের জন্য আমাদের এই উদ্যোগ। পাশাপাশি হতদরিদ্র কিছু মানুষকে আর্থিকভাবে সাহায্যের জন্য বিনামূল্যে মূলধন প্রদান করছি। এ সংগঠনটির মাধ্যমে সমাজের অনেক অসহায় মানুষ স্বাবলম্বী হয়েছেন। এভাবে সমাজের বিত্তবানরা এগিয়ে আসলে আমরা আরো বেশি মানুষের পাশে দাঁড়াতে পারবো। পে ইট ফরোয়ার্ড ও অনেস্টের প্রতিষ্ঠাতা কর কমিশনার বাদল সৈয়দ গতকাল কথাগুলো বলেন। জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে সমাজ সেবামুলক সংগঠন পে ইট ফরোয়ার্ডের ‘২য় জন্মোৎসব’ অনুষ্ঠানে অতিথি ছিলেন পে ইট ফরোয়ার্ডের প্রতিষ্ঠাতা কর কমিশনার বাদল সৈয়দ, পরিবার পরিকল্পনার মহাপরিচালক ও অতিরিক্ত সচিব মো. ওয়াহিদ হোসেন, জাতিয় রাজস্ববোর্ড সদস্য অসীম কুমার রায় ও পে ইট ফরোয়ার্ডের সদস্যরা। অনুষ্ঠানে অতিথিরা বলেন, পে ইট ফরোয়ার্ড এমন একটি সংগঠন যেখানে সব ধর্মের গরিব ও অভাবে কারণে পড়াশোনা বন্ধ হয়ে যাওয়া শিক্ষার্থীদের আর্থিক সাহায্য প্রদান করে আসছে। তাদের পড়ালেখা চালিয়ে যাওয়ার জন্য মাসিক বৃত্তির ব্যবস্থা করে আসছে। এ সংগঠনটির মাধ্যমে সমাজের বিত্তবানরা তাদের অব্যহৃত কাপড়সহ বিভিন্ন পুরাতন আধা পুরাতন জিনিস প্রদান করেন। গরিব অসহায় মানুষদের সাহায্য করে আসছে দুই বছর ধরে সংগঠনটি। আবার পে ইট ফরোয়ার্ডের মাধ্যমে শিক্ষার্থী, মধ্যবিত্তসহ বিভিন্ন শ্রেণির মানুষের জন্য ন্যায্যমূল্যে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য চাল, ডাল, তেলসহ বিভিন্ন জিনিস বিক্রি করে। গরিব শিক্ষার্থীদের পড়াশোনার জন্য বই, ব্যাগ, পোশাক, জুতাসহ সব উপকরণ প্রদান করেন। অনুষ্ঠানে পে ইট ফরোয়ার্ডের সাহায্যে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়, কলেজ, মেডিকেল কলেজ ও স্কুলে পড়াশোনা চালিয়ে যাওয়া শিক্ষার্থীরা তাদের জীবনের গল্প ও সাফলতা নিয়ে কথা বলেন।

The Post Viewed By: 57 People

সম্পর্কিত পোস্ট

Optimized with PageSpeed Ninja