চট্টগ্রাম শুক্রবার, ১৯ জুলাই, ২০১৯

সর্বশেষ:

১০ জুলাই, ২০১৯ | ৫:৫৯ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

পঞ্চম দিনে নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থীদের আন্দোলন

চার বছর মেয়াদী বিএসসি-ইন-নার্সিংয়ের পুরাতন কারিকুলাম বহাল, নতুন কারিকুলাম রিভিউ, নার্সিং এ স্বতন্ত্র প্রফেশনাল ক্যাডার সার্ভিস “বিসিএস (সেবা)” চালু, ইন্টার্ন ভাতা ও স্টাইপেন্ড বৃদ্ধি ও ক্লিনিকাল প্র্যাকটিস নার্স (সিপিএন) পদ সৃজনপূর্বক কলেজ পূর্ণাঙ্গ করার চার দফা দাবিতে সারাদেশের সরকারি নার্সিং কলেজগুলোতে পঞ্চম দিনের মত আজও ক্লাস, ক্লিনিকাল প্র্যাকটিস ও পরীক্ষা বর্জন এবং প্রতিবাদ সভা করছে বাংলাদেশ বেসিক গ্র্যাজুয়েট স্টুডেন্ট নার্সেস এসোসিয়েশন (বিবিজিএসএনএ)।
এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, দেশে ব্যাচেলর অব সায়েন্স ইন নার্সিং এর পাশাপাশি ডিপ্লোমা-ইন-নার্সিং সায়েন্স এন্ড মিডওয়াইফারি কোর্স চালু রয়েছে। নার্সিং-এ ১ম শ্রেণি তথা ৯ম গ্রেডে সরাসরি নিয়োগের কোনো বিধি না থাকায় ৪ বছর মেয়াদী ব্যাচেলর অব সায়েন্স-ইন-নার্সিং ডিগ্রিধারীদেরকে ডিপ্লোমা-ইন-নার্সিং সায়েন্স এন্ড মিডওয়াইফারি কোর্স সম্পন্নকারীদের সাথে ২য় শ্রেণি তথা ১০ম গ্রেডে সিনিয়র স্টাফ নার্স পদে যোগদান করতে হয়। বাংলাদেশের বিভিন্ন টেকনিক্যাল পেশায় বিএসসি ও ডিপ্লোমা শিক্ষা ব্যবস্থা চালু রয়েছে ও শিক্ষা শেষে প্রত্যেক পেশাতেই বিএসসি ও ডিপ্লোমাধারীরা যথাক্রমে ১ম ও ২য় শ্রেণির পদে পরীক্ষার মাধ্যমে যোগদান করা যায়। কিন্তু নার্সিংই একমাত্র পেশা যেখানে ৪ বছর মেয়াদী ব্যাচেলর ডিগ্রি সম্পন্নকারীরা ৯ম গ্রেডে সরাসরি নিয়োগের বিধি না থাকায় ১০ম গ্রেডে যোগদান করছে।



এছাড়া নার্সিং পেশায় স্বতন্ত্র পেশাগত ক্যাডার সার্ভিস “বিসিএস (সেবা)” চা্লু, নার্সিং কলেজগুলোতে ইন্টার্ন করার জন্য আলাদা আবাসনের ব্যবস্থা, ইন্টার্ন ভাতা ৬,০০০ টাকা থেকে ২০,০০০ টাকায় বৃদ্ধি, মাসিক স্টাইপেন্ড ১৬০০ থেকে বৃদ্ধি করে ৫০০০ টাকায় উন্নীত করা, অবিলম্বে ক্লিনিকাল প্র্যাকটিস নার্স (সিপিএন) পদ সৃজন করে তাতে জনবল নিয়োগের দাবি জানান আন্দোলনকারীরা। প্রয়োজন অনুসারে পদ সৃজন, তাতে পর্যাপ্ত দক্ষ জনবল নিয়োগ প্রদান করে ও ভৌত অবকাঠামো পরিপূর্ণ করে কলেজসমূহকে স্বয়ংসম্পূর্ণ করার দাবিও জানান তারা।
প্রসঙ্গত, আলোচ্য চার দফা দাবিতে গত শনিবার (৬ জুলাই) থেকে সকল প্রকার ক্লাস, ক্লিনিকাল প্র্যাকটিস ও পরীক্ষা বর্জন ও প্রতিবাদ সভা করছে আন্দোলনকারীরা।

পূর্বকোণ/রাজু-রাশেদ

The Post Viewed By: 242 People

সম্পর্কিত পোস্ট