চট্টগ্রাম বুধবার, ১৭ জুলাই, ২০১৯

সর্বশেষ:

১১ জুলাই, ২০১৯ | ২:২০ পূর্বাহ্ণ

প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

‘শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের তুঘলকি কা- কার্যাদেশের আগেই শুরু’ শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ জানিয়েছেন শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর চট্টগ্রাম জোনের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. জালাল উদ্দিন চৌধুরী।
তিনি বলেন, বর্তমানে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের সমস্ত দরপত্র ইজিপি পদ্ধতিতে হয়ে থাকে। দরপত্র ইজিপিতে হওয়ায় ঠিকাদারদের সিন্ডিকেট করার কোন সুযোগ থাকে না। সুতরাং এখানে সিন্ডিকেট এর হস্তক্ষেপের বিষয়টি সঠিক নয়। তিনি আরো বলেন, মূল বিষয় হলো প্রকাশিত সংবাদে উল্লেখিত কাজটি ইজিপিতে দরপত্র গ্রহণের পর যে ঠিকাদার কাজটি পেয়েছিলেন তাকে নোয়া (নোটিফিকেশন অব এওয়ার্ড) প্রদান করা হলে তিনি দুর্ভাগ্যবশত নির্ধারিত সময়ের মধ্যে পারফরমেন্স সিকিউরিটি জমা দিতে পারেননি। ফলে তার কাজটি বাতিল হয়ে যায় এবং তার সম্পূর্ণ জামানতের টাকা বাজেয়াপ্ত হয়ে সরকারি কোষাগারে জমা হয়। তারপর পুনঃ দরপত্র গ্রহণ করা হলে একজন ঠিকাদার দরপত্রে অংশগ্রহণ করেন। যার দরপত্র মূল্য প্রাক্কলিত মূল্য অপেক্ষা কম। আর কোন ঠিকাদার উক্ত দরপত্রে অংশগ্রহণ না করায় ইজিপি পদ্ধতির নিয়ম অনুযায়ী উক্ত ঠিকাদার সরাসরি কাজটি প্রাপ্ত হন এবং যথানিয়মে চুক্তিপত্র সম্পাদন করে কার্যাদেশ প্রাপ্ত হন।

The Post Viewed By: 53 People

সম্পর্কিত পোস্ট