চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ১৮ জুলাই, ২০১৯

সর্বশেষ:

১১ জুলাই, ২০১৯ | ২:১৯ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব সংবাদদাতা হ ফটিকছড়ি

মাজারের দান বাক্স নিয়ে বিরোধের জের

ভুজপুরে এক ব্যক্তির ঘরে লুট, পেট্রোল ঢেলে আগুন

উপজেলার ভুজপুর ইউপির সিংহরিয়া গ্রামে এক ব্যক্তির ঘরে গত ৯ জুলাই দিবাগত রাতে পেট্রোল ঢেলে আগুন দিয়েছে দুবৃর্ত্তরা। আগুনে একটি পিকআপও পুড়ে গেছে। তিন চারজন দুর্বৃত্ত ঘরে লুটপাট চালিয়ে নগদ ৫০ হাজার টাকা, স্বর্ণালংকারসহ মূল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে গেছে বলে ঘরের গৃহিনী সুলতানা রাজিয়া অভিযোগ করেছেন। উক্ত গ্রামের লেংটা ফকিরের মাজারের দানবাক্স নিয়ে বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষ এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে তিনি অভিযোগ করেছেন। গতকাল বুধবার সরেজমিনে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায় সিংহরিয়া গ্রামের উক্ত হাসেম ড্রাইভারের ঘরটির সামনের অংশ আগুনে পুড়ে গেছে। সে সাথে ঘরে রাখা তার নিজের মালিকানাধীন পিকআপ চট্ট্র মেট্রো-ন-১১-৩০৬৪ নাম্বারের গাড়িটির ইঞ্জিনসহ সামনের অংশ আগুনে পুড়ে গেছে। ঘটনাস্থলে উপস্থিত গৃহকর্তা হাসেম ড্রাইভারের স্ত্রী সুলতানা রাজিয়া (৩৫) এ প্রতিবেদককে বলেন, মঙ্গলবার দিবাগত রাত ২টার দিকে তিন/চার জনের মুখ বাঁধা দুর্বৃত্ত দলটি তাদের ঘরের দরজা খুলে ঘরে ঢুকে তাদের মারধোর করে বালিশের খোলের ভিতর থাকা ৫০ হাজার টাকা, আলমারী থেকে তিন জোড়া কানের দুল এবং একটি স্বর্ণের চেইন নিয়ে গেছে। অতপর দুর্বৃত্ত দল ঘরের সামনের রুমে থাকা পিক আপটিতে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দিয়ে যায় বলে জানান। এ সময় বাড়িতে তার ছোট দুই ছেলে নিয়ে তিনি একাই ছিলেন বলে জানান। এক পর্যায়ে উক্ত মহিলা ঘটনাটি মোবাইল ফোনে ভুজপুর থানা এবং আশেপাশের প্রতিবেশিদের জানালে ভুজপুর থানা থেকে পুলিশ এবং স্থানীয় জনতা এগিয়ে এসে আগুন নেভায় এবং মহিলা ও শিশু সন্তানদের উদ্ধার করে বলে জানান। এ ব্যাপারে উক্ত মহিলা স্থানীয় লেংটা ফকিরের দানবাক্স নিয়ে তার স্বামী হাসেম ড্রাইভার (৪৮), প্রতিবেশী নজরুল ইসলাম(৫৩), মো.রুবেল (৩২) মো.বাহাদুর (৩১) দের সাথে প্রতিপক্ষ ইকবাল হোসেন (৪০), আহমদ এলাহী চুনচুন ((৫৫) শওকত (৪৫) জালাল মিস্ত্রিী (৫২) প্রমুখের সাথে দীর্ঘদিন যাবত বিরোধ চলে আসছিল দাবি করে তারাই এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে অভিযোগ করেন। এ ব্যাপারে ভুজপুর থানার ওসি শেখ আব্দুল্লার্হ বক্তব্য জানতে ফোনে একাধিকবার চেষ্টা করে তাঁকে পাওয়া যায়নি।
তবে ভুজপুর থানার সেকেন্ড অফিসার শাহাদাত হোসেনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, কোন একটি মহল উদ্দেশ্যমূলক ভাবে এ ঘটনা ঘটিয়ে থাকতে পারে বলে বলে তিনি মন্তব্য করেন। তিনি ঘটনাস্থল থেকে আলামত হিসেবে কেরোসিনের ডিব্বা সহ কিছু আলামত পেয়েছেন বলে জানান। এবং সে সাথে মামলা করার জন্য উক্ত পরিবারের লোকজনকে থানায় আসতে বলা হয়েছে বলে জানান। তবে সন্ধ্যা ৬টায় এ রিপোর্ট লেখার সময় পর্যন্ত থানায় কেউ মামলা দিতে আসেনি বলে তিনি জানান।

The Post Viewed By: 72 People

সম্পর্কিত পোস্ট