ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : প্রবল বৃষ্টিপাত ও ঠা-া উপেক্ষা করে পাকিস্তানের কোয়েটা শহরে হাজারা সম্প্রদায়ের লোকজন টানা তৃতীয় দিনের মতো অনশন অব্যাহত রেখেছেন।
তারা দাবি করছেন, প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে সেখানে যেতে হবে এবং তাদের সুরক্ষা ও জাতীয় কর্ম-পরিকল্পনা পরিপূর্ণভাবে বাস্তবায়নের প্রতিশ্রুতি দিতে হবে।
গত শুক্রবার কোয়েটার হাজারগঞ্জি ফল ও সবজি বাজারে ভয়াবহ আত্মঘাতী বোমা হামলায় অন্তত ২০ জন নিহত হওয়ার পর হাজারা সম্প্রদায়ের লোকজন এই অনশন শুরু করেন। বিস্ফোরণে হাজারা সম্প্রদায়ের অন্তত ১০ সদস্য নিহত হয়েছে। অনশনে এরইমধ্যে যোগ দিয়েছেন মজলিশে ওয়াহাদাতে মুসলিমিনের নেতারা।
নারী ও শিশুসহ শত শত প্রতিবাদকারী পশ্চিমের বাইপাস সড়ক দখল রেখেছেন। প্রাদেশিক সরকারের কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনা সত্ত্বেও তারা অনশন ও অবস্থান কর্মসূচি প্রত্যাহার করতে রাজি হন নি। গত দুই দশকে কোয়েটা শহর ও আশপাশের এলাকায় বিভিন্ন হামলায় হাজারা সম্প্রদায়ের অন্তত ৫০০ ব্যক্তি নিহত হয়েছে।
প্রতিবাদকারী বলছেন, হাজারা সম্প্রদায়ের ওপর এ ধরনের হামলা অবসানের গ্যারান্টি এবং শিক্ষা ও চিকিৎসার মতো গুরুত্বপূর্ণ মৌলিক চাহিদা পূরণের আশ্বাস দিলেই কেবল তারা কর্মসূচি প্রত্যাহার করবেন।

Share