খ্যাতনামা সংগীতশিল্পী আইয়ুব বাচ্চুর মৃত্যুর পর তার পরিবারের আপত্তির মুখে ‘এলআরবি’ ব্যান্ডের নাম পরিবর্তন করা হল। ব্যান্ডটি এখন থেকে ‘বালাম অ্যান্ড লিগেসি’ নামে পারফর্ম করবে বলে জানিয়েছেন দলের ম্যানেজার শামীম আহমেদ। আইয়ুব বাচ্চুর হাত ধরে ১৯৯১ সালের ৫ এপ্রিল প্রতিষ্ঠিত হয় ‘এলআরবি’। সে সময় তার সঙ্গী ছিলেন জয়, স্বপন ও এসআই টুটুল। শুরুতে এলআরবির পুরো নাম ছিল ‘লিটল রিভার ব্যান্ড’, পরে তা বদলে নাম হয় ‘লাভ রানস ব্লাইন্ড’। গত বছরের অক্টোবরে আইয়ুব বাচ্চুর মৃত্যুর পর এলআরবির ভবিষ্যৎ নিয়ে ভক্তদের মধ্যে শঙ্কা তৈরি হয়। তার মৃত্যুর সপ্তাহ দুয়েক পর ছেলে আহনাফ তাজওয়ার বাবার গিটার কাঁধে এলআরবির সঙ্গে মঞ্চে উঠলে নতুন আশার সঞ্চার হয় ভক্তদের মধ্যে। চট্টগ্রামের এম আজিজ স্টেডিয়ামের উত্তাল জনসমুদ্রে নিজের কণ্ঠে বাবার গান তুলে আলোড়ন তুলেছিলেন আহনাফ। কিন্তু তারপর আর তাকে এলআরবির মঞ্চে দেখা যায়নি। গত ৫ এপ্রিল ‘এলআরবি’র ভোকাল হিসেবে সংগীতশিল্পী বালামকে যুক্ত করার ঘোষণা আসে। এর দিন দশেক পর ‘এলআরবি’র নাম ব্যবহার নিয়ে আপত্তি তোলে আইয়্বু বাচ্চুর পরিবার। রবিবার ব্যান্ডের নাম পরিবর্তনের ঘোষণার মধ্য দিয়ে বাচ্চুর পরিবারের সঙ্গে এলআরবি সদস্যদের মধ্যে মতানৈক্য প্রকাশে এল। আহনাফ তাজওয়ারসহ পরিবারের বাকি সদস্যরা একাট্টা হয়ে রবিবার এলআরবির বর্তমান সদস্যদের জানিয়েছেন, তারা আর ‘এলআরবি’ নামে পারফর্ম করতে পারবেন না। শামীম আহমেদ বললেন, “বসের (আইয়ুব বাচ্চু) পরিবার আর এলআরবি কন্টিনিউ করতে চাচ্ছে না। ‘এলআরবি’ নামটা না থাকলেও উনার প্রতি আমাদের সম্মানটা থাকবে। যদি সামনে কোনো বাধা না আসে তাহলে বসের গান নিয়েই থাকব। গানের বিষয়ে পরিবারের কোনো আপত্তি আছে কি না জানতে চাইলে শামীম বলেন, এলআরবির গান তো যে কেউ কাভার করতে পারে। সেখানে এলআরবি এলআরবির গান গাইবে এটাই স্বাভাবিক। হঠাৎ নাম বদল করতে হওয়া এই ব্যান্ড দলের সদস্যরা ‘মর্মাহত’ বলে জানান তিনি। ‘জন্মের পর থেকে যাকে বাবা ডেকেছেন কিন্তু একদিন সকালে বলা হল, উনি আপনার বাবা না। তখন কেমন লাগবে? কিন্তু জীবনটা তো চালাতেই হবে।’ নাম বিষয়ক জটিলতার মুখে ব্যান্ডটি এবার পহেলা বৈশাখের কোনো কনসার্টে পারফর্ম করতে পারেনি।

Share
  • 63
    Shares