সমাজসেবক ফরিদ মাহমুদ বলেছেন, আমাদের ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানগুলোতে শিক্ষাদানের কাজে যাঁরা নিয়োজিত তাঁদের অনেকেরই আধুনিক শিক্ষাজ্ঞান নেই। মুখস্থ বিদ্যায় অভ্যস্থ এদের অনেকেই ধর্মীয় গ্রন্থের অমর বাণীগুলোর অর্থ পর্যন্ত জানে না। তাই এদের অনেকেই জঘন্য কর্মকা- করতে বা অপকর্ম করতে ভাবে না। প্রকৃত ধর্ম প্রাণ কখনো পাপ কাজ করতে বা অপকর্ম করতে পারে না।
আমাদেরকে উন্নতি করতে হলে জঙ্গিবাদ, মৌলবাদ, সন্ত্রাস ও ধর্মান্ধতার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে। পশ্চিম বাকলিয়া ক্লাসিক ইয়ং বয়েজ সংঘ কর্তৃক চার দিনব্যাপী বাসন্তী পূজার উদ্বোধনী দিনে আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পুরস্কার বিতরণীতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। খালপাড় মৎস ব্যবসায়ী সমিতির সৌজন্যে কে.বি. আমান আলী রোড ফুলতলায় পূজা প্রাঙ্গণে আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন পূজা কমিটির সভাপতি পন্ডিত ড. রাজকুমার আচার্য্য রাজু। সা. সম্পাদক মিঠুন দাশের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন মো. আশরাফুল গণি, দেলোয়ার হোসেন দেলু, হোসেন সরওয়ারদী, শাহেদ মুরাদ সাকু, আমিনুল ইসলাম আজাদ, অরুন দাশ, উজ্জ্বল দাশ, বাবু দাশ, সুজন সাহা, সুমন চক্রবর্তী, বিপ্লব দাশ, পূজন দাশ, বিষু চক্রবর্তী, দীপক দাশ, বাদল দাশ, কৃষ্ণ দাশ, শুক্লক দাশ, জনি দেব প্রমুখ। আলোচনা সভার প্রারম্ভে শিশু-কিশোরদের নৃত্য, সংঙ্গীত, আবৃত্তি প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। সভা শেষে বিজয়ীদের হাতে পুরষ্কার ও সনদ তুলে দেন প্রধান অতিথি ফরিদ মাহমুদসহ পরিষদ নেতৃবৃন্দ।-বিজ্ঞপ্তি

Share