নিজস্ব প্রতিবেদক

আর মাত্র কয়েক দিন পরেই প্রিয় মানুষটির সাথে ঘর বাধার কথা ছিলো ইস্ট ডেল্টা ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থী জারিন জাহারার। পারাবারিকভাবেই প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির ছাত্র ইফতেখার আহমেদ জিসানের সাথে বিয়ে হওয়ার কথা ছিলো জারিনের। তবে প্রিয় মানুষটির সাথে আংটি বদল হলেও ঘর বাধার স্বপ্ন পূরণ হলো না জারিনের। সারা জীবন যে প্রিয় মানুষটির সাথে কাটানোর কথা তাকে একা ফেলেই না ফেরার দেশে চলে গেলেন জারিন।
হবু বর ইফতেখার আহমেদ জিসানের সাথে নগরীর পতেঙ্গা সৈকতে ভ্রমণ শেষে বাসায় ফেরার পথে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারায় জারিন জাহান (২০)। রবিবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে পতেঙ্গা থানাধীন বিমান বন্দর সড়কের বোট ক্লাবের সামনে জারিনকে বহনকারী প্রাইভেটকারটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দুর্ঘটনার কবলে পড়ে। এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হয় জারিন এবং আহত হয় তার হবু বর জিসান ও গাড়ি চালক মাইমুল বলে জানান পতেঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) উৎপল বড়–য়া।
ওসি উৎপল বড়–য়া বলেন, ‘জিসানের সাথে নিহত তরুণী জারিন জাহানের বিয়ে হওয়ার কথা ছিলো। তবে এখনো কোন দিন-ক্ষণ ঠিক করা হয়নি। তারা রবিবার সৈকত ভ্রমণ শেষে বাসায় ফেরার পথে দুর্ঘটনার কবলে পড়ে। এতে জারিন মারা যান। এবং জিসান ও তাদের গাড়ি চালক মাইমুল আহত হয়’।
আহত চালক মাইমুল আগ্রাবাদ ইসলামিয়া হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছে বলে জানান চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই আলাউদ্দিন তালুকদার।
তিনি বলেন, দুর্ঘটনায় নিহত জারিন জাহানের হবু বর জিসান সামন্য আহত হলেও তাদের গাড়ির চালক মাইমুল গুরতর আহত হয়েছে। তিনি বতর্মানে আগ্রাবাদ ইসলামিয়া হাসপাতালের আইসিইউতে চিকাৎসাধীন অবস্থায় আছে।
নিহত জারিন জাহান নগরীর চান্দগাঁও আবাসিকের বাসিন্দা মো. আবুল কালামের মেয়ে। তিনি ইস্ট ডেল্টা ইউনিভার্সিটির কম্পিউটার সাইন্স বিভাগের ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী। জারিনের হবু বর ইফতেখার আহমেদ জিসান প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির বিবিএ’র ৫ম বর্ষের ছাত্র।
নিহত জারিন জাহানকে গতকাল সোমবার রাত ১০টার দিকে চন্দনাইশের পশ্চিম এলাহিবাদ এলাকায় তাদের পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে। এর আগে নগরীর চান্দগাঁও আবাসিক এলকার জামে মসজিদে তার প্রথম জানাযা নামাজ অনুষ্ঠিত হয়।

Share
  • 344
    Shares