মফস্বল ডেস্ক

উপজেলার বিভিন্ন স্কুলে ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতাসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। আয়োজিত অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, শিক্ষার্থীদের শিক্ষা গ্রহণের পাশাপাশি ক্রীড়া ও সংস্কৃতির চর্চা করে জীবনে পরিপূর্ণতা আনতে হবে।
মাতৃভূমি: সীতাকু-ের নিজস্ব সংবাদদাতা জানান, উপজেলার পশ্চিম মহাদেবপুর আলম সফি প্রাথমিক বিদ্যালয় ক্যাম্পাসে সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন মাতৃভূমি’র সংস্কৃতি চর্চা কেন্দ্রের উদ্যোগে স্কুলভিত্তিক শিশুদের সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা শুরু হয়েছে ২৩ মার্চ। অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও মাতৃভূমির উপদেষ্টা মো. জাহাঙ্গীর ভূঁইয়া। মানস নন্দীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সীতাকু- প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সৌমিত্র চক্রবর্তী। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক শিপলু দাসের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি ছিলেন সীতাকু- মডার্ন হাসপাতাল লিমিটেডের ম্যানেজিং ডিরেক্টর মো. খালেক মোশারফ, দৈনিক আজাদী প্রতিনিধি লিটন কুমার চৌধুরী, সাংবাদিক ইমাম হোসেন স্বপন। বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয়ের শিক্ষক ইকবাল হোসেন টিপু। বক্তারা বলেন, শিক্ষা গ্রহণের পাশাপাশি ক্রীড়া ও সংস্কৃতির চর্চা না করলে পরিপূর্ণ মানুষ হওয়া যায় না। জীবনটা অসম্পূর্ণ থেকে যায়। তাই সুন্দর ভবিষ্যত বিনির্মাণে প্রত্যেক শিশুর যেমন মন দিয়ে পড়াশুনা করা উচিত তেমনি জরুরি সংস্কৃতি চর্চাও। এর মধ্যে দিয়েই আজকের শিশুদের অনেকে ভবিষ্যতে নিজেকে আলোকিত মানুষ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে পারবে। মাতৃভূমির সদস্য প্রমিত, অনিক ও টুলুর সার্বিক সহযোগিতায় প্রতিযোগিতায় বিচারকের দায়িত্ব পালন করেন মীনাক্ষী ও তমা। প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের পহেলা বৈশাখে বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের মাধ্যমে পুরস্কার তুলে দেয়া হবে। এছাড়া এই প্রতিযোগিতা ধারাবাহিকভাবে উপজেলার সকল প্রাথমিক বিদ্যালয় ও কিন্ডার গার্টেনেও অনুষ্ঠিত হবে বলে কর্মকর্তারা জানান।
আনোয়ারা পূর্ব বরৈয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়: বিদ্যালয়ে বার্ষিক পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন পরিচালনা কমিটির সভাপতি জিয়া উদ্দিন আহামদ চৌধুরী আশফাক। সহকারী শিক্ষক কফিল উদ্দিনের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি ছিলেন আনোয়ারা উপজেলার প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আশীষ কুমার আশ্চার্য্য। বিশেষ অতিথি ছিলেন আনোয়ারা উপজেলার সহকারী শিক্ষা অফিসার রঞ্জন ভট্টাচার্য্য, বিটন চন্দ্র দেব, প্রধান শিক্ষক শিপ্রা দাশ, উত্তর গহিরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবদুল জব্বার, পূর্ব গহিরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ ইদ্রিছ ও ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য মোহাম্মদ নাছির। বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক লুৎফুন নাহার পারভিন, ওসমান গণি, মেনকা চক্রবর্তী, আনোয়ার হোসেন, রুমা চক্রবর্তী, শুকলা দে প্রমুখ।

Share