এস এম মোরশেদ মুন্না হ নাজিরহাট

ফটিকছড়ি উপজেলা পরিষদ নির্বাচন কাল (১৮ মার্চ)। উপজেলায় নির্বাচনী প্রস্তুতি শতভাগ সম্পন্ন হয়েছে বলে নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে। আজকের (১৭ মার্চ) মধ্যে প্রতিটি কেন্দ্রে নির্বাচনী সরঞ্জাম দায়িত্ব প্রাপ্তদের হাতে বুঝিয়ে দিয়ে স্ব-স্ব কেন্দ্রে পাঠানো হবে। নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে রয়েছেন তিন প্রার্থী। নৌকা প্রতীক নিয়ে উপজেলা আ. লীগের সাধারণ সম্পাদক নাজিম উদ্দিন মুহুরী, আনারস প্রতীক নিয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী সাবেক জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক, আ. লীগ নেতা হুসাইন মুহাম্মদ আবু তৈয়ব এবং উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি মুহাম্মদ আবছার উদ্দিন (নাঙ্গল) প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্ধন্দ্বিতা করছেন পাঁচজন। তাঁরা হলেন, সাংবাদিক বিশ্বজিৎ রাহা (টিউবওয়েল), সালামাত উল্লাহ শাহীন (বই), সৈয়দ জাহেদ উল্লাহ কোরাইশী (তালা), রতন কান্তি চৌধুরী (চশমা) এবং ইসমাঈল মজুমদান (উড়োজাহাজ)। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে রয়েছেন জেবুন নাহার মুক্তা (প্রজাপতি), রাজিয়া মাসুদ (গদ্মফুল) ও শারমীন আকতার (কলস)। ফটিকছড়ি উপজেলায় মোট ভোটার ৩ লাখ ৭৬হাজার ৮৫ জন। যারমধ্যে পূরুষ ভোটার ৯১ হাজার ৬’শ ১০ জন ও মহিলা ভোটার ১ লাখ ৯৪ হাজার ৮’শ ৭৫ জন। কাল ১’শ ৩৬টি কেন্দ্রে ১ হাজার ১’শ ১৩টি বুথে সকাল ৮টা হতে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। কেন্দ্রের

ভেতরে সর্বমোট ১’শ ৩৬ জন প্রি-জাইডিং অফিসার, ১ হাজার ১৩জন সহকারী প্রি-জাইডিং ও ২ হাজার ২৩ জন পোলিং অফিসার দায়িত্ব পালন করবেন। নির্বাচনের জন্য নেওয়া হয়েছে চার স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা। প্রতি কেন্দ্রে অস্ত্রসহ সর্বনি¤œ ৫জন এবং সর্ব্বোচ্চ ১০ জন করে পুলিশ থাকবে। এছাড়া আনসার থাকবে ১০ জন করে, যারমধ্যে অন্তঃত দুই জনের কাছে আর্মস থাকবে। প্রতি ইউনিয়নে ১টি করে মোবাইল টিম স্টাইকিং ফোর্সসহ দায়িত্ব পালন করবে। পুরো উপজেলাতে ৫ প্লাটুন বিজিবি থাকবে। র‌্যাবের ৮টি টিম কাজ করবে। বিশেষ ফোর্সসহ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট থাকবে ৮ জন ও জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট থাকবে ১জন।
জানতে চাইলে ফটিকছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুশফিকুর রহমান জানান, একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে যা যা দরকার তার সবকিছু নিয়ে কাল ফটিকছড়িতে উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সুন্দর ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে নির্বাচন উপহার দিতে পারবেন বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

Share