বিশ্ব ভোক্তা অধিকার দিবস উপলক্ষে ‘নিরাপদ মানসম্মত পণ্য’ প্রতিপাদ্যে নগরীতে বিভিন্ন সংগঠন ও প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি উপজেলা পর্যায়েও দিবসটি পালন করা হয়। এ উপলক্ষে আয়োজিত কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে, র‌্যালি, আলোচনা সভা, রচনা প্রতিযোগিতা, ব্লাড গ্রুপিং, সম্মাননা প্রদান ও পুরস্কার বিতরণ। দিবসটিতে বক্তারা বলেন, সর্বক্ষেত্রে দুর্নীতি রোধে ভোক্তা অধিকার আইনের যথাযথ প্রয়োগ করা প্রয়োজন।
সিআরবি : ভোক্তা অধিকার একটি সর্বজনীন অধিকার। ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণের মাধ্যমে গণমানুষের চিকিৎসা ব্যয় কমিয়ে আনা, পণ্যদ্রব্যের ন্যায্যমূল্য এবং গুণগত মান নিশ্চিতে সকলের জন্য নিরাপদ খাদ্য প্রাপ্তির অধিকার প্রতিষ্ঠা সর্বোপরি সুস্থ সবল জাতি গড়তে হবে। সচেতন, সংগঠিত ও সহযোগিতা প্রবণ ভোক্তা শ্রেণি গড়ে তুলতে সরকারের পাশাপাশি সকল শ্রেণি-পেশার মানুষকে ভোক্তা অধিকার প্রতিষ্ঠায় সাহসী ভূমিকা পালন করতে হবে বলে অভিমত ব্যক্ত করেছেন মালা ব্যানার্জী। ‘নিরাপদ মানসম্মত পণ্য’ প্রতিপাদ্যে গতকাল শুক্রবার চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের ইঞ্জিনিয়ার আব্দুল খালেক মিলনায়তনে কাউন্সিল অব ভোক্তা অধিকার বাংলাদেশ (সিআরবি)’র উদ্যোগে বিশ্ব ভোক্তা অধিকার দিবসের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভারতের জাতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত ও ফেডারেশন অব কনজিউমার এসোসিয়েশন পশ্চিমবঙ্গের সভাপতি মালা ব্যানার্জী উপরোক্ত বক্তব্য রাখেন। সিআরবি’র মহাসচিব নকশাবিদ কেজিএম সবুজের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে মূখ্য আলোচক ছিলেন চট্টগ্রাম কলেজের রসায়ন বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক ড. নূকম আকবর হোসেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রাক্তন প্যানেল মেয়র ও নারী নেত্রী রেখা আলম চৌধুরী, ব্যবসায়ী মহিউদ্দিন, সোলায়মান বাদশা, মহানগর সিআরবি’র সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট সৈয়দ মো. কামাল উদ্দীন, এম এ জলিল, ফেরদৌস আলী, প্রকৌশলী শাহিন চৌধুরী, জিয়াউর রহমান, নোমান উল্লাহ বাহার প্রমুখ।
কাজীর দেউড়ি কাঁচা বাজার প্রাঙ্গণ থেকে সচেতনতামূলক বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা শেষে আলোচনা পর্ব সম্পন্ন হয়। অনুষ্ঠানে তিনজন পেশাজীবীকে তৃতীয়বারের মত বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদানের জন্য সিআরবি কনজিউমার এওয়ার্ড ২০১৯ যথাক্রমে সাংবাদিকতা ও গবেষণায় ‘ইতিহাসের খসড়া’ সম্পাদক মুহাম্মদ শামসুল হক, পুলিশ কর্মকর্তা মাসুদুর রহমান ও সমাজ সেবায় নারী উদ্যোক্তা জান্নাতুল ফেরদৌস জান্নাতকে প্রদান করা হয়।
অনুষ্ঠানে মালা ব্যানার্জী আরও বলেন, নিরাপদ খাদ্য সবার নাগরিক অধিকার। খাদ্যে ভেজাল প্রতিরোধে সামাজিক আন্দোলনের বিকল্প নেই। সুস্থ জীবন নিশ্চিতে সুষম খাদ্য উৎপাদন করা প্রয়োজন। এছাড়াও তিনি বাংলাদেশে ভোক্তা অধিকার প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে নিরন্তর প্রচেষ্টা চালিয়ে যাওয়ায় কাউন্সিল অব ভোক্তা অধিকার বাংলাদেশ-সিআরবি’র ভূয়সী প্রশংসা করেন।
কাউন্সিল অব ভোক্তা অধিকার: ‘নিরাপদ মানসম্মত পণ্য’ প্রতিপাদ্যে বেসরকারি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন কাউন্সিল অব ভোক্তা অধিকার সিআরবির উদ্যোগে গতকাল শুক্রবার বিকেলে র‌্যালি, আলোচনা সভা, সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের আবদুল খালেক মিলনায়তনে সংগঠনের মহাসচিব নকশাবিদ কে.জি.এম সবুজের সভাপতিত্বে নোমান উল্লাহ বাহারের পরিচালনায় আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সেলফ এইডের ব্যবস্থাপনায় সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন ফেডারেশন অব কনজুমার এসোসিয়েশন পশ্চিম বঙ্গের সভাপতি মালা ব্যানার্জী। তিনি বলেন, এ পৃথিবীতে একটি শিশু জন্ম হওয়ার সাথে সাথে সে মানবাধিকারের দাবিদার হয়। ভোক্তা অধিকার আইন শতভাগ প্রয়োগ করা হলে সর্বক্ষেত্রে দুর্নীতি চিরবিদায় হবে। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম কলেজের অধ্যাপক নুকম আকবর হোসেন, অধ্যাপক সুকান্ত ভট্টাচার্য ও সাবেক কাউন্সিলর রেখা আলম চৌধুরী। বক্তব্য রাখেন, জিয়াউর রহমান, ফেরদৌস আলম, রিমন মুহুরী, জান্নাতুল ফেরদৌস, মোহাম্মদ আলী, সাজ্জাদুর রহমান, মুজিব উল্লাহ তুষার, মো. হারুণ, এম.এ জলিল প্রমুখ। আলোচনা সভা শেষে বিশিষ্ট ব্যক্তি ও সংগঠকদের কনজুমার এওয়ার্ড প্রদান করা হয়।
ইচ্ছা: বিশ্ব ভোক্তা অধিকার দিবস উপলক্ষে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব প্রাঙ্গণে সেচ্ছাসেবী সামাজিক সংগঠন ইচ্ছা ও মানব উন্নয়ন সংস্থার অঙ্গ সংগঠন ইচ্ছা হিউম্যান ব্লাড ব্যাংকের উদ্যোগে ফ্রি ব্লাড গ্রুপ নির্ণয় কর্মসূচি বাস্তবায়ন করা হয়। ইচ্ছা হিউম্যান ব্লাড ব্যাংকের এডমিন সাইফুল করিম বাবরের প্রতিনিধিত্বে এসময় উপস্থিত ছিলেন ইচ্ছা মানব উন্নয়ন সংস্থার চেয়্যারম্যান আরিফুল ইসলাম, যুগ্ম সচিব সানজিদা নাসরিন, সিনিয়র সদস্য ইয়াসমিন, রিদয়, রুবেল, পলাশ, টিটু, সেতু প্রমুখ। ফ্রি রক্তের গ্রুপ নির্ণয় কর্মসূচিতে সর্বমোট ১২০ জন ব্যক্তির রক্ত গ্রুপ নির্ণয়সহ সংস্থার সদস্যগণ জনসচেতনতামূলক বক্তব্য প্রদান করেন।
বোয়ালখালী: ‘নিরাপদ মানসম্মত পণ্য’ এ প্রতিপাদ্যকে সামনে নিয়ে বোয়ালখালীতে বিশ্ব ভোক্তা অধিকার দিবস পালিত হয়েছে। গতকাল (শুক্রবার) সকালে এ উপলক্ষে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। এতে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণে ছাত্র, শিক্ষক ও অভিভাবকের ভূমিকা শীর্ষক রচনা প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান কাজি ওবাইদুল হক হক্কানির সভাপতিত্বে ও পরিষদ সিএ শওকত হোসাইনের সঞ্চালনায় এতে বক্তব্য রাখেন উপজেলা কৃষি অফিসার মো. আতিক উল্লাহ, শিক্ষা অফিসার সদানন্দ পাল, পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা মো. মাহমুদুর রহমান, ক্যাব সদস্য মো. আখতার কামাল প্রমুখ। রচনা প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অধিকার করে গোমদন্ডী পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মো. এমদাদুল হক, ২য় ও ৩য় স্থান অধিকার করে কধুরখীল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মো. আরাফাত উদ্দীন আরিফ ও সাবরিনা সুলতানা।

Share