মহানগর আ. লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী বলেছেন, শিশুরা আগামীর বাংলাদেশের ভবিষ্যৎ। সুন্দর বাংলাদেশ গড়তে হলে তাদের সৃজনশীল শিক্ষায় শিক্ষিত করতে হবে। শিক্ষা ছাড়া একটি জাতি সামনের দিকে যেতে পারে না। তাই আমি মনে করি, প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার পাশপাশি সাংস্কৃতিক চর্চা শিশুদের এগিয়ে নেবে এবং বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে ভূমিকা রাখবে। তিনি আরো বলেন, ২০২০ সালে বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মবার্ষিকী। এই দিনটি হবে বাঙালি জাতির জন্য অনন্য একটি দিন। দল-মত-নির্বিশেষে সর্বজনীনভাবে এ দিনটি উদ্যাপন করা উচিত। তিনি গতকাল ১৫ মার্চ সকাল ৯টায় চট্টগ্রাম মিউনিসিপ্যাল মডেল স্কুল এন্ড কলেজে আমরা ক’জন মুজিব সেনা নগর শাখা আয়োজিত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে সাহিত্য, সাংস্কৃতিক ও চিত্রাংকন প্রতিযোগিতার উদ্বোধনীতে উদ্বোধকের বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনের দু’দিনব্যাপী এই প্রতিযোগিতায় প্রথমদিন রবীন্দ্র সংগীত, নজরুল সংগীত, দেশাত্ববোধক গান ও আবৃত্তি প্রতিযোগিতায় প্রায় ৫ শতাধিক শিশু-কিশোর অংশগ্রহণ করেন।
নেওয়াজ খান রবিনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ বোখারী আজমের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কাউন্সিলর তারেক সোলেমান সেলিম, আবদুল হান্নান চৌধুরী, শাহাব উদ্দিন সজীব, আবু হাসনাত চৌধুরী, ডা. হোসেন আহম্মদ, মো. আকরাম, শাহীন আহমেদ, মিঠু কুমার শীল, রাইয়ান রানা, এড. সুব্রত শীল রাজু, তানভীন তারেক, লিটন কুমার শীল, শহিদুল আলম টিপু, রবিউল হোসেন, প্রান্ত দেওয়ানজী প্রমুখ।
প্রতিযোগিতার দ্বিতীয় দিন আগামী ১৭ মার্চ চট্টগ্রাম শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে সকাল ৯টায় নৃত্য, বিকাল ৩টায় সুন্দর লেখা ও সাড়ে ৩টায় চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। বিকেল সাড়ে ৪টায় শিশু সমাবেশ ও পুরস্কার বিতরণে প্রধান অতিথি থাকবেন সিটি মেয়র আ.জ.ম নাছির উদ্দীন। বিশেষ অতিথি থাকবেন মো. গোলাম রব্বানী ছিনু, আফজালুর রহমান বাবু, কিবরিয়া মজুমদার, জাকির হোসেন মারুফ, মো. জসিম উদ্দিন চৌধুরী। সভাপতিত্ব করবেন কাউন্সিলর তারেক সোলেমান সেলিম।-বিজ্ঞপ্তি

Share