গতকাল ১৪ মার্চ বিশ^ কিডনি দিবস পালিত হয়। কিডনি রোগের প্রতিকার ও প্রতিরোধে জনগণকে উদ্বুদ্ধ করার লক্ষে এই দিবস সারাবিশে^ প্রতিপালিত হয়। বিশ^ব্যাপী ৮৫০ মিলিয়ন রোগী বিভিন্ন ধরনের কিডনি রোগে আক্রান্ত। ক্রনিক কিডনি রোগ বর্তমান বিশ্বে ৬ষ্ঠতম দ্রুত বর্ধমান মৃত্যুর কারণ হিসাবে দেখা দিয়েছে। প্রতিবছর প্রায় ২.৪ মিলিয়ন রোগী ক্রনিক কিডনি রোগে মৃত্যুবরণ করে। এই দিবস উপলক্ষে সকাল ৯ টায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের নেফ্রোলজি বিভাগ ও বাংলাদেশ রেনাল এসোসিয়েশেন চট্টগ্রাম শাখা বীর উত্তম শাহ আলম অডিটোরিয়াম থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালির আয়োজন করে। কিডনি দিবসের থিম সম্বলিত টি-শার্ট ও ক্যাপ নিয়ে বিভিন্ন ব্যানার ও ফেস্টুনে সজ্জিত হয়ে র‌্যালি মূল সড়ক প্রদক্ষিণ করে চট্টগ্রাম

মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ কার্যালয় প্রাঙ্গণে শেষ হয়।
বেলুন উড়িয়ে র‌্যালি উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশন চট্টগ্রাম শাখার সভাপতি অধ্যাপক ডা. মো. মুজিবুল হক খান, চট্টগ্রাম মেডিকেলের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. সেলিম মো. জাহাঙ্গীর, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের পরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল মোহসেন উদ্দিন আহমেদ, বাংলাদেশ রেনাল এসোসিয়েশন চট্টগ্রাম শাখার সভাপতি ও নেফ্রোলজি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডা. প্রদীপ কুমার দত্ত এবং বাংলাদেশ রেনাল এসোসিয়েশন চট্টগ্রাম শাখার সাধারণ সম্পাদক ডা. মো. নুরুল হুদা ।
র‌্যালি শেষে সংক্ষিপ্ত আলোচনায় নেফ্রোলজি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডা.প্রদীপ কুমার দত্ত জানান, কিডনি রোগ বাংলাদেশ সহ সারাবিশে^ একটি উদীয়মান স্বাস্থ্য সমস্যা। দেশে প্রতিবছর প্রায় ৪০ হাজার মানুষ কিডনি রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যায়।
এছাড়া ক্রনিক কিডনি রোগের ৬৬.৬% কারণ হল ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপ। তাই কিডনি রোগ প্রতিরোধে ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে গুরুত্বারোপ করে জনসচেতনতা গড়ে তুলতে হবে।-বিজ্ঞপ্তি

Share