ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ডে ব্লু ইকোনমির প্রথম জাহাজ নির্মাণের কিল লেয়িং (আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন অনুষ্ঠান) উদযাপনের মাধ্যমে চট্টগ্রামের প্যাসিফিক ঈগল লি. এর জন্য একটি ৪৭ মিটার দীর্ঘ ফিশিং ট্রলার নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করা হয়েছে।
প্যাসিফিক ঈগল লি. হচ্ছে চট্টগ্রামের স্বনামধন্য জে কে গ্রুপের একটি অংঙ্গ সংগঠন। গতকাল বৃহস্পতিবার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উভয় প্রতিষ্ঠানের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ ও আন্তর্জাতিক ক্লাসিফিকেশন সংস্থা ব্যুরোভেরিটাস ফ্রান্স এর বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার মো. হারুনুর রশিদ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ড লি. এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সাখাওয়াত হোসেন বলেন, এই জাহাজটি হবে বাংলাদেশে নির্মিত প্রথম এইচ.এ.সি.সি.পি. সম্বলিত জাহাজ যা বাংলাদেশের গভীর সমুদ্র সীমায় ব্লু ইকোনমি অঞ্চলে নিরাপদে অধিক পরিমাণে মাছ ধরতে সক্ষম হবে। ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ডের চেয়ারম্যান মো. সাইফুল ইসলাম বলেন, আমাদের জাহাজ নির্মাণশিল্প ক্রমবর্ধমান হচ্ছে এবং এটা প্রমাণিত যে, আমরা আমাদের দেশের ব্যবহারের জন্য সবধরনের জাহাজ নির্মাণ করতে সক্ষম। তিনি এই শিল্প খাতে ইউরোপের মত কম সুদে দীর্ঘমেয়াদি তহবিল গঠন করার অনুরোধ জানান। এতে জাহাজ নির্মাণ শিল্পে অধিক কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা হবে বলে অভিমত ব্যক্ত করেন।উন্নত প্রযুক্তির এই জাহাজের দৈর্ঘ্য ৪৭ মিটার, প্রস্থ ১১ মিটার, ধারণ ক্ষমতা ৩৫০মে.টন এবং জাহাজটি এইচ.এ.সি.সি.পি সমৃদ্ধ নির্মিত হবে, দেশ থেকে যদি কোন মাছ রপ্তানি করতে হয় তাহলে ফিশিং ট্রলারে এ সিষ্টেম অবশ্যই থাকতে হবে। উল্লেখ্য, ওয়েস্টার্ন মেরিন গ্রুপ এই পর্যন্ত মোট ১৩টি ফিশিং ট্রলার নির্মাণ করেন যার মধ্যে ৪টি জে কে গ্রুপের জন্য নির্মাণ করা হয়েছে। জাহাজগুলোর গুনগত মান নিয়ে ক্রেতা প্রতিষ্ঠান সন্তোষ প্রকাশ করেন এবং এরই ধারাবাহিকতায় এই জাহাজটির কার্যাদেশ প্রদান করেন। প্রসঙ্গতঃ এই ১৩টি জাহাজ নির্মাণের ফলে ওয়েস্টার্ন মেরিন নরওয়ের জন্য একটি ৮০মি. দৈর্ঘ্য হাইটেক ফিশিং ট্রলার নির্মাণের কার্যাদেশ পায় যা এখন নির্মাণাধীন রয়েছে। এটিই হবে নরওয়ের সর্ববৃহৎ ফিশিং ট্রলার এবং বাংলাদেশে নির্মিত প্রথম হাইটেক প্রযুক্তির ফিশিং ভেসেল যা বিদেশের জন্য রপ্তানি হবে। – বিজ্ঞপ্তি

Share