ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : রাফালে রায় নিয়ে বিরোধিতা ও নথির ওপরে সরকারের অধিকার দাবি – এই দুটি বিষয় নিয়েই রাফালে মামলা শুনছিল সুপ্রিম কোর্ট। এদিন পরপর সওয়াল-জবাব শেষে রায় স্থগিত রাখল শীর্ষ আদালত।
আগের বার রাফালে নিয়ে কেন্দ্র সরকারের পক্ষে আদালত রায় দিয়েছিল। তার বিরুদ্ধে আদালতে পরপর পিটিশন জমা পড়লে সেগুলি একসঙ্গে করে রাফালে মামলা পুনর্বিবেচনার জন্য আদালত রাজি হয়েছে। কেন্দ্রের হয়ে রাফালে মামলায় সওয়ালের শুরুতেই অ্যাটর্নি জেনারেল কেকে বেণুগোপাল এদিন আদালতে জানিয়েছেন যে সরকার রাফালে মামলায় যে রিপোর্ট জমা করেছে তাতে ভুল ছিল। প্রথম তিনটি পাতা খোয়া গিয়েছে।
ফলে সরকার সেগুলিকেও আদালতের রেকর্ডে আনতে চায়। আদালত রাফালে মামলায় স্পষ্ট জানিয়েছে, কোনও দুর্নীতি বা মানবাধিকার ভঙ্গ হলে সরকারি গোপনীয়তা আইনের কথা বলে তা আটকে রাখা যাবে না। এদিন মুখ্য বিচারপতিসহ বেঞ্চ এই মামলা শুনতে বসেছে। কেন্দ্র এদিন আদালতে দাবি করেছে, রাফালে নিয়ে কোনওরকম কাগজপত্র আদালতে জমা করার আগে সংশ্লিষ্ট দফতরের কাছে তার অনুমতি নিতে হবে।

Share