ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : পোপ ফ্রান্সিসের উদারপন্থী মনোভাবের সমালোচনা করেছেন ক্যাথলিক খ্রিস্টানদের কট্টরপন্থী ধর্মগুরুরা। তাদের দাবি, পোপ ফ্রান্সিস বিভ্রান্ত। তিনি ক্যাথলিক খ্রিস্টানদের বিভ্রান্ত করছেন। ফ্রান্সিসের বিরুদ্ধে পদচ্যুত ভ্যাটিকানের সাবেক এক উচ্চপদস্থ ধর্মগুরু রীতিমতো প্রচারপত্র প্রকাশ করেছেন।
বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, মধ্যপ্রাচ্য সফরে গিয়ে পোপ ফ্রান্সিস মিসরের আল আযহারের গ্র্যান্ড ইমাম আহমেদ আল তাইয়েবের সঙ্গে এক যৌথ ইশতেহারে স্বাক্ষর করেছেন, যাতে বিশ্বভ্রাতৃত্ব প্রতিষ্ঠার জন্য কাজ করে যাওয়ার অঙ্গীকার রয়েছে। আগে থেকেই ক্ষুব্ধ কট্টর ক্যাথলিক ধর্মগুরুরা এই ঘটনায় আরও বেশি ক্ষুব্ধ হয়েছেন। ভ্যাটিকানের পদচ্যুত যে সাবেক উচ্চপদস্থ ধর্মগুরু প্রচারপত্র প্রকাশ করেছেন তার নাম কার্ডিনাল গেরহার্ড মুলার (৭১)। ২০১৭ সালে পদচ্যুতির আগ পর্যন্ত তিনি জার্মানিতে ‘কংগ্রেগেশন ফর দা ডক্ট্রিন অব দ্য ফেইথের’ প্রধান হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তার লিখিত ‘ম্যানিফেস্ট অব ফেইথ’ নামের প্রচারপত্রটি আগেই বিভিন্ন খ্রিস্টান ধর্মীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হয়ে গেছে। কিন্তু তাতে তারিখ লেখা ১০ ফেব্রুয়ারির। ১০ ফেব্রুয়ারি সাবেক পোপ বেনেডিক্টের পদত্যাগ দিবস।
কট্টরপন্থী খ্রিস্টান ধর্মগুরুরা তাকে গভীরভাবে সম্মান করে। কার্ডিনাল মুলারের ভাষ্য, এরকম একটি প্রচারপত্র লেখার জন্য তাকে বারবার অনুরোধ করে আসছিলেন অনেকেই। ‘ডকট্রিন অফ ফেইথের’ বিরুদ্ধে বাড়তে থাকা বিভ্রান্তির প্রেক্ষিতে তিনি প্রচারপত্রটি রচনা করেছেন।
তার ভাষ্য, ‘ভ্যাটিকানের কিছু নেতা সেসব মানুষকে প্রকৃতপক্ষে ত্যাগ করেছেন যারা তাদের উপর আস্থা রেখেছিল। তারা বিশ্বাসীদের অবস্থান নড়বড়ে করে দিয়েছেন।’ অবশ্য ‘ম্যানিফেস্ট অব ফেইথের’ কোথাও পোপ ফ্রান্সিসের নাম উল্লেখ নেই।

Share