বিদ্যাদেবী শ্রী শ্রী সরস্বতী পূজা উদযাপন উপলক্ষে বিভিন্ন সংগঠন ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উদ্যোগে গতকাল রবিবার নানা কর্মসূচি পালিত হয়েছে। কর্মসূচির মধ্যে ছিল পুষ্পার্ঘ অর্পণ, বৃত্তি প্রদান, আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।
চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ বাণী অর্চনা সংসদ: বাণী অর্চনা বিদ্যা দেবী সরস্বতী পূজা উদযাপন উপলক্ষে গতকাল রবিবার দুপুরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ বাণী অর্চনা সংসদ ও আকাশ-স্বীকৃত পরিষদের সকল সদস্যদের উদ্যেগে অস্বচ্ছল মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে সুতপা-দীপন বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন। সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন অন্ষ্ঠুানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত

থেকে অস্বচ্ছল মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা বৃত্তি বিতরণ করেন। এসময় চট্টগ্রাম বিএমএর সভাপতি অধ্যাপক ডা. মুজিবুল হক খান, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের উপাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. প্রদীপ কুমার দত্ত এবং কাউন্সিলর শৈবাল দাশ সুমনসহ মেডিকেল কলেজ ছাত্র সংসদের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। মেয়র তাঁর সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বলেন অসাম্প্রদায়িক এই ক্যাম্পাসে অসাম্প্রদায়িকতার বার্তা নিয়ে আবার এলো সরস্বতী পূজা। এই পূজাকে কখনোই চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের ছাত্র-ছাত্রীরা সনাতন ধর্মাবলম্ব^ীদের একক অনুষ্ঠান মনে করে না। প্রতি বছরের ধারাবাহিকতায় এই বছরও চট্টগ্রামের সবচেয়ে বড় সরস্বতি পূজা আয়োজনের জন্য বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, চমেক ও চমেকসুর সদস্যদের ধন্যবাদ জানান মেয়র।
চট্টগ্রাম আইন কলেজ : এদিকে ছাত্র-যুব ঐক্য পরিষদ ও বাণী অর্চণা সংসদ চট্টগ্রাম আইন কলেজ শাখার যৌথ উদ্যোগে পরিষদের সভাপতি সজল দের সভাপতিত্বে জে.এম.সেন হল প্রাঙ্গণে দু:স্থ ও গরীব মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা সামগ্রী ও খাদ্য বিতরণ এবং আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি চসিক মেয়র আ.জ.ম নাছির উদ্দীন। পরিষদের সাধারণ সম্পাদক বিটু মুহুরীর সঞ্চালনায় শিক্ষা সামগ্রী ও খাদ্য বিতরণ কর্মসূচিতে উদ্বোধনী বক্তব্য রাখেন কলেজ অধ্যক্ষ জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মহানগর পূজা পরিষদের সভাপতি এডভোকেট চন্দন তালুকদার, জন্মষ্টমী কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক বিমল কান্তি দে। এতে আরও উপস্থিত ছিলেন নগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান আল মাহমুদ, আওয়ামী লীগ নেতা মো. ইছা, মো. রাশেদুল আলম, নগর পূজা পরিষদের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সুমন দেব নাথ, কাউন্সিলর শৈবাল দাশ সুমন, নগর পূজা পরিষদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট নটু চৌধুরী, পুলক খাস্তগীর, এডভোকেট টিপু শীল জয়দেব, রজত সাহা রনি, অপরেশ দাশ, চন্দন পালিত, রেবা বড়–য়া, জাফর আলম রবিন, সাজু চৌধুরী প্রমুখ।
চট্টগ্রাম বিশ^বিদ্যালয়: চবি কেন্দ্রীয় মন্দির কমিটির উদ্যোগে এবং চবি প্রশাসনের সার্বিক সহযোগিতায় বাণী অর্চনা অত্যন্ত জাঁকজমকপূর্ণভাবে চবি কেন্দ্রীয় মন্দির প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয়। এ উপলক্ষে গতকাল রবিবার সকালে মন্দির প্রাঙ্গণে পূজা অর্চনা ও প্রার্থনা সভার আয়োজন করা হয়। চবি কেন্দ্রীয় বাণী অর্চনা সংসদের সভাপতি প্রফেসর সুকান্ত ভট্টাচার্যের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চবির উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীণ আখতার, চবি কলা ও মানববিদ্যা অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মো. সেকান্দর চৌধুরী, ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. শংকর লাল সাহা, এ এফ রহমান হলের প্রভোস্ট প্রফেসর ড. গণেশ চন্দ্র রায়, চবি শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর ড. অলক পাল এবং চবি প্রক্টর প্রফেসর মোহাম্মদ আলী আজগর চৌধুরী। অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন অদুল-অনিতা ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা শ্রী অদুল কান্তি চৌধুরী। উপ-উপাচার্য বাণী অর্চনা উপলক্ষে উপস্থিত সকলকে স্বাগত ও আন্তরিক শুভেচ্ছা জানান। তিনি বলেন, দেবী সরস্বতী জ্ঞান-প্রজ্ঞা ও আলোর দিশারী। ভক্তগণ দেবীকে শ্রদ্ধাঞ্জলী প্রদান এবং আশীর্বাদ গ্রহণের জন্য দেবী মায়ের কৃপা দৃষ্টি কামনা করেন। তিনি শিক্ষার্থীসহ সকলকে দেবী সরস্বতীর আশীর্বাদ গ্রহণের মাধ্যমে অশুভ শক্তিকে নিধন করে সত্য-সুন্দর-কল্যাণকে ধারণ করে অসাম্প্রদায়িক চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে নিজেদের জীবনকে আলোকিত করার আহবান জানান। চবি মার্কেটিং বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ড. সজীব কুমার ঘোষের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান ধর্মীয় আলোচক ছিলেন শঙ্কর মঠ ও মিশনের অধ্যক্ষ স্বামী তপনানন্দ গিরি মহারাজ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন চবি কেন্দ্রীয় মন্দির কমিটির সদস্য প্রফেসর ড. তাপসী ঘোষ রায়। এছাড়াও অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন চবি সংস্কৃত বিভাগের সহকারী অধ্যাপক কুশল বরণ চক্রবর্তী, ঢাকা রমনা কালী মন্দিরের উপদেষ্টা মিলন শর্মা এবং পার্থ প্রতীম দাশ। পবিত্র গীতা পাঠের মাধ্যমে আলোচনা অনুষ্ঠানের সূচনা হয়। পরে শিক্ষার্থীদের পরিবেশনায় অনুষ্ঠিত হয় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।
হাটহাজারী পূজা উদযাপন পরিষদ : বাণী অর্চনা নামে খ্যাত স্বরস্বতী পূজা উপলক্ষে গতকাল রবিবার হাটহাজারী উপজেলায় সনাতনী সম্প্রদায়ে পূজা সমন্বয়কারী প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ উপজেলা শাখার নেতৃবৃন্দ বিভিন্ন পূজা ম-প পরিদর্শন করেন। এসময় জোবরা বড়–য়া পাড়াস্থ জোবরা গ্রাম মোহনবাশী শীল বাড়ি প্রাঙ্গণে স্বরস্বতী পূজা উপলক্ষে ধর্ম সভার আয়েজন করা হয়। টিটু শীলের সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি ছিলেন বিশিষ্ট সমাজ সেবক ও পূজা পরিষদের প্রাক্তন সভাপতি মাস্টার পরিমল কান্তি দে। এতে প্রধান আলোচক ছিলেন হাটহাজারী পূজা পরিষদের সভাপতি মাস্টার অশোক কুমার নাথ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন জেলা পূজা পরিষদের যুগ্ম-সম্পাদক অলক মহাজন। বিশেষ অতিথি ছিলেন বিধান বড়–য়া, রিমন মুহুরী, জগদীশ রুদ্র, ডা. রাজেশ দেব, কাজল শীল ও অভিজিৎ শীল। বক্তব্য রাখেন, জগদীশ রুদ্র, রণী দেব নাথ, সুজিত শীল, বিটু শীল, লিটন শীল, প্রসেনজিৎ শীল, শাওন শীল, সনজিত শীল, রকি শীল, শান্ত শীল, সানী শীল প্রমুখ।
সীতাকু- সরকারি মহিলা কলেজ : প্রতিবছরের মত এবারো সরস্বতী পূজা উদযাপিত হয়েছে। গতকাল রবিবার সকালে কলেজ মিলনায়তনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে পুরোহিত বিজয় ভানু চক্রবর্তী শ্রদ্ধার সাথে পূজার আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করেন। এতে কলেজের শিক্ষক-শিক্ষিকা থেকে শুরু করে শিক্ষার্থীরা স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশগ্রহণ করে দেবী সরস্বতীর আরাধনা করেন। পূজা শেষে সবাই পুষ্প অঞ্জলি দিয়ে শ্রদ্ধার সাথে প্রসাদ গ্রহণ করেন। এদিন পূজা উপলক্ষে আয়োজিত ধর্মীয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন কলেজ অধ্যক্ষ জরিনা আখতার। বক্তব্য রাখেন সিনিয়র প্রভাষক বনানী দত্ত, সুকদেব রুদ্র ও শিক্ষার্থী রিয়া। এসময় উপস্থিত ছিলেন প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সৌমিত্র চক্রবর্তী, কলেজের সহকারী অধ্যাপক মো. দিদারুল আলম, শেখ সালাউদ্দিন, প্রভাষক উজ্জল কান্তি দাশ, রূপনা মজুমদার প্রমুখ।

Share