কামাল পারভেজ অভি , সৌদি আরব

সৌদিআরবের পবিত্র ভূমি মদিনা মনোয়ারায় মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) এর রওজা মুবারক জিয়ারত করতে গিয়ে নির্মমভাবে নিহত হয়েছে ৬ বছরের শিশু জাকারিয়া জাবের। তার মায়ের মুখে দরুদ শরীফ শোনার পর গাড়ির কাঁচ ভেঙে তা দিয়ে মায়ের সামনেই শিশুটিকে নির্মমভাবে হত্যা করেছে এক ট্যাক্সি ড্রাইভার। বলা হচ্ছে, মাজহাবগত বিদ্বেষের শিকারে পরিণত হয়েছে শিশুটি। এরই মধ্যে শিশুটির জানাজা সম্পন্ন হয়েছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নিহত শিশুর পরিচয় পাওয়া যায়নি। আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে বলা হচ্ছে, ঘটনাটি গত বৃহস্পতিবার রাতের। শিশুটিকে নিয়ে তার মা একটি ট্যাক্সিতে করে মদিনায় হযরত মুহাম্মদ (সা.) এর রওজা মুবারকের দিকে যাচ্ছিলেন। ট্যাক্সিতে উঠে তিনি দরুদ শরীফ পাঠ করতেই ট্যাক্সি ড্রাইভার জানতে চান তিনি শিয়া মুসলমান কিনা ? উত্তরে ওই নারী বলেন- জ্বি। এরপরই ট্যাক্সি থামিয়ে চালক নিচে নেমে আসে এবং ট্যাক্সির ভেতর থেকে শিশুটিকে নামিয়ে এনে ভাঁঙা কাচ দিয়ে মায়ের সামনেই শিশুটির ঘাড় থেকে মাথা আলাদা করে ফেলে ওই চালক। মা এই দৃশ্য দেখে সেখানেই জ্ঞান হারান। মদিনায়

এমন হত্যাকা-ে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। সবাই বলছে, কতটা উগ্র ও হিং¯্র হলে নিষ্পাপ শিশুকে এত নির্মমভাবে হত্যা করতে পারে একজন মানুষ। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও চলছে ব্যাপক সমালোচনা। তবে বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, যে ব্যক্তি একটি নিষ্পাপ শিশুকে হত্যা করতে পেরেছে, সে নির্দ্বিধায় গোটা মুসলিম সমাজ এমনকি গোটা পৃথিবীও ধ্বংস করতে পারবে।

Share
  • 15
    Shares