ফটিকছড়ি উপজেলার ভূজপুর থানাধীন বাসি মহাজনহাটের পশ্চিমপাশে শ্রী শ্রী কৃষ্ণাঙ্গন মহোৎসব পরিচালনা পর্ষদের উদ্যোগে তিন দিনব্যাপী মহোৎসব সম্পন্ন হয়েছে ৯ ফেব্রুয়ারি।
অনুষ্ঠানসূচির মধ্যে ছিল মঙ্গলারতি ও মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্জ্বলন, মহামাঙ্গলিকতায় মহোৎসবের শুভ অধিবাস, অধিবাস কীর্তনে কাজল মিত্র ও তার দল, শাকপুরা, বোয়ালখালী। ৮ ফেব্রুয়ারি মহোৎসব শুভারম্ব ও আহোরাত্র মহানাম সংকীর্তন, ঠাকুরের ভোগরাগ, দুপুরে আনন্দ বাজারে মহাপ্রসাদ বিতরণ। ৯ ফেব্রুয়ারি কৃষ্ণভঙ্গ কীর্তন, নগর পরিক্রমা ও নন্দোৎসব। সার্বিক নাম কীর্তনে সহযোগিতায় ছিলেন অচ্যুতানন্দ সম্প্রদায় চকরিয়া, শচীনন্দ সম্প্রদায় কুমিল্লা, জয় বাসন্তী সম্প্রদায় বাগেরহাট ও অনুকুল সম্প্রদায় চট্টগ্রাম। ভাগবতীয় সনাতনী মহোৎসবে উপস্থিত ছিলেন শ্রী শ্রী কৃষ্ণাঙ্গন মন্দির পরিচালনা কমিটির সভাপতি ডা. হরিপদ মহাজন, সহ-সভাপতি কাজল কান্তি নাথ, সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন ডা. বিজয় কৃষ্ণ বৈষ্ণব, সাধারণ সম্পাদক অনিল চন্দ্র সেন, গৌরাঙ্গ মোহন দে, বিমল কান্তি সাহা, ডা. রতন কান্তি সাহা, ডা. মনিন্দ্র কুমার নাথ, পূর্ণ সাহা, মেঘনাথ রায়, সুজন কান্তি দে, সাধন চন্দ্র নাথ, ধনা দাশ, বিবিসেন, প্রণব দে, আব দে, বাচ্চু লাল নাথ, রতন কান্তি চৌধুরী, প্রতাপ রায়, রঞ্জিত চৌধুরী, কাজল শীল, সুব্রত চৌধুরী, রূপক দে, তরুণ কুমার আচার্য কৃষ্ণ, জয়টু শীল, বরুণ কুমার আচার্য বলাই, অর্চ্চনা রানী আচার্য, ঝন্টু শীল সুমন মালাকার, সুমন সেন ও সমীর কান্তি দাশ।-বিজ্ঞপ্তি

Share