বিজিসি ট্রাস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. সরোজ কান্তি সিংহ হাজারী বলেছেন, শিক্ষা মানুষকে আলোকিত করে। শিক্ষা মানুষকে নিজের পায়ে দাঁড়াতে সহায়তা করে। সেই আলোয় সমাজ ও দেশ আলোকিত হয়। আজকের মেধাবী কোমলমতি শিক্ষার্থীরাই আগামীতে দেশ ও সমাজের কল্যাণে আত্মনিয়োগ করবে। আগামী প্রজন্মকে জ্ঞানে-বিজ্ঞানে সমৃদ্ধ করার মহান ব্রতে দি চিটাগং ট্রাস্ট-বাংলাদেশ (সিটিবি) এর কর্মকা- প্রশংসার দাবি রাখে। তিনি গত শুক্রবার বিকেলে নগরীর কে.সি.দে রোডস্থ একটি কমিউনিটি সেন্টারে দি চিটাগং ট্রাস্ট মেধাবৃত্তি পরীক্ষার বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। অধ্যাপক স্বদেশ চক্রবর্তীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত অতিথি ছিলেন প্রফেসর অর্ধেন্দু বিকাশ রুদ্র। বিশেষ অতিথি ছিলেন সিএমপি’র উপ-পুলিশ কমিশনার বিজয় কুমার বসাক, বিটিভি চট্টগ্রাম কেন্দ্রের জেনারেল ম্যানেজার নিতাই কুমার ভট্টাচার্য, এডভোকেট চন্দন তালুকদার, বিমল কান্তি দে, দিলীপ কান্তি মল্লিক। স্বাগত বক্তব্য রাখেন দি চিটাগং ট্রাস্টের মহাসচিব অরুন কান্তি মল্লিক। অধ্যাপক জনার্দ্দন বণিক ও শিক্ষক উত্তম চক্রবর্তীর সঞ্চালনায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ডা. নারায়ণ চন্দ্র মজুমদার, প্রদীপ দাশ পরাগ, অধ্যাপক মৃণাল বণিক, মিলন কান্তি রুদ্র, দোলন কান্তি দাশ, যুবরাজ মল্লিক, ব্যাংকার নারায়ন দাশ, রনজিত নাথ, তাপস তালুকদার, বিভাস দাশ, দেবব্রত শীল বাসু, সৈকত ভট্টাচার্য্য, তপন ধর, এড. যদুনাথ চৌধুরী, নোবেল কিশোর চৌধুরী, চম্পা চৌধুরী, জগদীশ মল্লিক, গুরুসদয় বিশ্বাস, রাজশ্রী মজুমদার, রিংকু ভট্টাচার্য্য, শ্যামল দেব প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে সিটিবি’র স্মরণিকা ‘নলেজ’ এর মোড়ক উন্মোচন করেন অতিথিবৃন্দ। বিভিন্ন শ্রেণির বৃত্তিপ্রাপ্ত ২৬৫ জন ছাত্র-ছাত্রীদের ক্রেস্ট, সার্টিফিকেট ও প্রাইজবন্ড প্রদান করা হয়।-বিজ্ঞপ্তি

Share