পূর্বকোণ স্পোর্টস ডেস্ক

ডেভিড ওয়ার্নারের ঝড় থামিয়ে দিয়েছিলেন সাকিব আল হাসান। শেষ মুহূর্তে আন্দ্রে রাসেলের ঝড় উড়িয়ে দিয়েছে সিলেট সিক্সার্সকে। সেটা পরশু ঘটনা। কিন্তু বাংলাদেশের ক্রিকেট সমর্থকদের মনে একটা বিষয় ঘুরপাক খাচ্ছিল বেশ, সিলেটের বিপক্ষে ঝড়ো ব্যাটিং করে হাফ সেঞ্চুরি করার পর সেটা উদযাপনে সেজদায় পড়ে গিয়েছিলেন সাকিব। সাদামাটা একটা হাফ সেঞ্চুরি করে সাকিবের মত নির্লিপ্ত মানুষের এমন সেজদায় পড়ে যাওয়ার কারণ কি? সাকিবের ক্যারিয়ারে বল কিংবা ব্যাট হাতে অর্জনের পাল্লা মোটেও হালকা নয়। দীর্ঘ সময় অলরাউন্ডারের শীর্ষস্থানটা দখলে রাখার পাশাপাশি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বেশ সাফল্যের সঙ্গেই পথ চলছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের টেস্ট এবং টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক। ওয়ানডে এবং টেস্টে সেঞ্চুরিও করেছেন অনেক, বল হাতে ৫ উইকেটেও নিয়েছেন বেশ কয়েকবার। কিন্তু ওয়ানডেতে সেঞ্চুরি কিংবা টেস্টে ডাবল সেঞ্চুরি করেও সাকিবের উদযাপন ছিল খুবই সাদামাটা। কোনোমতে ব্যাট উঁচিয়ে তোলাটাও যেন তার কাছে মনে হতো অনেক ‘ভার’।
সেই সাকিবই কি না বিপিএলের মত ফ্রাঞ্চাইজি টুর্নামেন্টে এসে সিলেট সিক্সার্সের বিপক্ষে হাফ সেঞ্চুরি করার পর সোজা সেজদায় চলে গেলেন! সিলেটের বিপক্ষে ম্যাচ জয়ের পর সংবাদ সম্মেলনে আসেননি সাকিব। যে কারণে এমন উদযাপনের কথা সরাসরি তার মুখ থেকে শোনারও সুযোগ হয়নি সাংবাদিকদের। যদিও পরে, ঢাকা ডায়নামাইটসের দলীয় সূত্রে জানা গেছে, এই একটি হাফ সেঞ্চুরির জন্য দীর্ঘ লালায়িত ছিলেন সাকিব। বিপিএলের মত টুর্নামেন্টে সাকিব নিজেও ভুলে গিয়েছিলেন, কবে হাফ সেঞ্চুরি পেয়েছেন তিনি। অবশেষে সেটা যখন এলো, তখন সব আবেগের বাধ ভেঙে গেলো তার। মহান আল্লাহর শুকরিয়া আদায়ের জন্য মাঠেই লুটিয়ে পড়লেন সিজদায়। বিপিএলে দীর্ঘ ৬ বছর পর প্রথম হাফ সেঞ্চুরির দেখা পেয়েছেন সাকিব। নিঃসন্দেহে লম্বা একটি সময়। ২০১৩ সালের ফেব্রুয়ারিতে সাকিব সর্বশেষ ফিফটি হাঁকিয়েছিলেন ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্সের হয়ে চিটাগাং ভাইকিংসের বিপক্ষে। এরপর কেটে গেছে ৬টি বছর এবং ৩টি আসর। গত ৬ বছরে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে সাকিব মোট ১১টি ফিফটি করেছেন। এর মধ্যে ৬টিই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে। বাকি ৫টির কোনোটিই বিপিএলে নয়। এর মাঝে অনেকবারই সাকিব বিপিএলে ব্যাট করতে নেমে উইকেটে থিতু হয়েছেন ঠিক। কিন্তু কেন যেন পঞ্চাশের ঘরেই পা দিতে পারছিলেন না। এ কারণেই ভেতর থেকে কঠিন এক তাড়া অনুভব করছিলেন। ফিফটি খরা ঘোচাতেই হবে যে করে হোক। অবশেষে সিলেট সিক্সার্সের বিপক্ষে ৪১ বলে খেললেন অপরাজিত ৬১ রানের ইনিংস। ৮ বাউন্ডারির সঙ্গে ছক্কা মেরেছেন ২টি। ম্লান করে দিয়েছেন ‘ফোলা হাত’ নিয়ে খেলতে নামা ডেভিড ওয়ার্নারের ৪৩ বলে ৬৩ রানের ইনিংসকে। ঢাকা ডায়নামাইটসের ম্যানেজার মিডিয়াকে বলেন, ‘প্রথম যেবার ঢাকা চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল, সেবার মনে হয় সে বিপিএলে সর্বশেষ ফিফটি করেছিল। মাঝে অনেক বছর কোনো ফিফটি ছিল না। সে কারণেই এমন উদযাপন।’

Share