নিজস্ব প্রতিবেদক

অন্য দশ শিশুর মতই নাম রাখা হলো নগরীর আগ্রাবাদের ফুটপাতে জন্ম নেয়া মানসিক ভারসাম্যহীন সেই রোজিনার সন্তানের। দায়িত্ব নেয়া পুলিশ সদস্য এসআই মাসুদুর রহমান গতকাল বুধবার বিকেলে রোজিনার বাসস্থান আগ্রাবাদের ডোবার পাড়ে গিয়ে তার নাম রাখেন ‘আয়াত’। তবে মানসিক ভারসাম্যহীন সেই রোজিনা তার সন্তানের নাম রাখতে চায় ‘খুশবু’। এর আগে গত ৭ জানুয়ারি আগ্রাবাদ ফুটপাতে জন্ম নেয়া রোজিনার সন্তানের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের উদ্ধার করে আগ্রাবাদ মা ও শিশু হাসপাতালে নিয়ে যান দেওয়ানহাট পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই মাসুদুর রহমান। এর পর থেকেই মা ও শিশুর দায়িত্ব নেন এই পুলিশ সদস্য। যদিও কয়েকদিন পর সন্তানের বাবা দাবি করেন ইসমাইল হোসেন। পরে তাদের হাসপাতাল থেকে আগ্রাবাদ ডোবার পাড়ে একটি বাসায় থাকার ব্যবস্থা করে দেন এসআই মাসুদ। এরপর থেকেই তাদের নিয়মিত খোঁজ খবর রাখছেন তিনি।
সন্তানের নাম রাখা সম্পর্কে এসআই মাসুদুর রহমান পূর্বকোণকে বলেন, এই ঘটনাটি আমার জীবনে একটি মাইলফলক হিসেবে থাকবে, যা সারাজীবনের একটি চিহ্ন। তাই সে চিন্তা করেই তার নাম ‘আয়াত’ রেখেছি। যেহেতু আমার কাছে একটি চিহ্ন হিসেবেই ঘটনাটি থেকে যাবে তাই তার নাম আয়াত রেখেছি। আমি এই বিষয় জীবনেও ভুলতে পারবো না।
এদিকে, আগামী শুক্রবার আগ্রাবাদ ডোবার পাড়ে মসজিদে আনুষ্ঠানিকভাবে মিলাদ-মাহফিলের আয়োজন করেছেন মাসুদুর রহমান। তিনি বলেন, দুইজন হুজুরকে বলেছি। শুক্রবার আনুষ্ঠানিকভাবে মিলাদ-মাহফিল করে তার নাম রাখা হবে এবং পরে স্থানীয়দের মাঝে মিষ্টি বিতরণ করা হবে।
পুলিশ সদস্য মাসুদের দেয়া নামটি মা রোজিনার পছন্দ হয়নি। রোজিনা তার সন্তানের নাম রাখতে চায় খুশবু। তবে ইসমাইলের ইচ্ছে আয়াত ও খুশবু দুটো নামেই ডাকবে তাদের সন্তানকে।

Share
  • 45
    Shares