নিজস্ব সংবাদদাতা, কক্সবাজার

কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মেয়র মুজিবুর রহমান বলেছেন, পাহাড়তলী সন্ত্রাস ও মাদক অধ্যুষিত এলাকা। দীর্ঘদিন ধরে এখানকার মানুষকে সন্ত্রাসী ও মাদক কারবারীরা জিম্মি করে রেখেছে। তবে এবার তাদের লাগাম টেনে ধরা হবে। বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাষ্ট্র ক্ষমতায় থাকতে কক্সবাজারের কোথাও কোন ধরনের অপরাধ কর্মকা- সহ্য করা হবে না বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন তিনি। তাই আগামী ৩০ জানুয়ারির মধ্যে পাহাড়তলীর সকল সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ীদের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কাছে আত্মসমর্পণের জন্য আল্টিমেটাম দিয়েছেন মেয়র মুজিব।
গত মঙ্গলবার বিকালে পাহাড়তলীর স্থানীয় নতুন বাজার চত্বরে মাদক, সন্ত্রাস ও নৈরাজ্য প্রতিরোধ করে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার দৃঢ় প্রত্যয়ে ৭ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এই আল্টিমেটাম দেন। তিনি আরও বলেন, এখানকার মাদক ব্যবসায়ী ও সন্ত্রাসীরা আত্মসমর্পণ করলে তাদের আর আইনগত হয়রানি পোহাতে হবে না। স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে আওয়ামী লীগ ও কক্সবাজার পৌরসভা তাদের পাশে থাকবে। আর এর বিপরীত হলে অপরাধীদের কঠিন পরিস্থিতির সম্মুখীন হতে হবে। তিনি এলাকার আইনশৃঙ্খলা সমুন্নত রাখতে সন্ত্রাস, মাদক ও নাশকতা বিরোধী কমিটি করার নির্দেশ দেন। ৭ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি জাফর আলমের সভাপতিত্বে সমাবেশে প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি নজিবুল ইসলাম ও বিশেষ বক্তার বক্তব্য রাখেন পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক উজ্জ্বল কর। মঞ্জুর আলম ও ওসমান গণির সঞ্চালনায় সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ইশতিয়াক আহমদ জয়, পৌর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কাউন্সিলর কাজী মোরশেদ আহমদ বাবু, কাউন্সিলর জাহেদা আক্তার, মিজানুর রহমান।

Share