ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : মধ্য আফ্রিকান প্রজাতন্ত্র বা সিএআর-এ সামরিক ঘাঁটি প্রতিষ্ঠার কথা বিবেচনা করছে রাশিয়া। এরইমধ্যে এক চুক্তির আওতায় দেশটির সেনাবাহিনীকে প্রশিক্ষণ দিচ্ছে রুশ সেনারা।
মধ্য আফ্রিকান প্রজাতন্ত্রের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ম্যারি নোয়েলে কোইয়ারা রুশ বার্তা সংস্থা রিয়া নভোস্তিকে জানান, গত আগস্ট মাসে মস্কো ও বাংগুইয়ের মধ্যে সই হওয়া চুক্তির আওতায় তার দেশে রুশ ঘাঁটি প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব। কোইয়ারা বলেন, “আমরা সামরিক ঘাঁটি প্রতিষ্ঠার বিষয়ে সুনির্দিষ্টভাবে কিছু বলি নি তবে ওই চুক্তির আওতায় সামরিক ঘাঁটি প্রতিষ্ঠার সম্ভাবনা বাদ দেয়া হয় নি।”
নারী এ প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন, “আমাদের দেশের জনগণ রাশিয়াকে খুব ভালোভাবে উপলব্ধি করতে পারে। যখন রাশিয়া সম্পর্কে আলোচনা হয় তখন জনগণ মনে করে তারা পুরোপুরিভাবেই মিত্র এবং এর মাধ্যমে দেশের ভবিষ্যৎ পাল্টে যেতে পারে।”
এদিকে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ত্যাগের পর ব্রিটেন দক্ষিণপূর্ব এশিয়া এবং ক্যারাবিয় অঞ্চলে স্থায়ী সামরিক ঘাঁটি স্থাপন করবে বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে। রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া জাখারোভা বলেছেন, স্থায়ী সামরিক ঘাটি স্থাপনের পরিকল্পনা করার অধিকার ব্রিটেনে আছে; তবে লন্ডনের সামরিক সম্প্রসারণের কারণে যদি কোনো হুমকি সৃষ্টি হয় তা হলে অবিলম্বে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে মস্কো দেরি করবে না।

Share