*একদিন বিদেশের এক সাহিত্যিক ট্রেনে চলেছেন বাইরে। তাঁর কামরায় সহযাত্রী বলতে মাত্র দুজন ভদ্রমহিলা। সাহিত্যিক সঙ্গী না পেয়ে চুপচাপ তাঁরই লেখা একটা বইয়ের পাতা ওল্টাচ্ছিলেন। পেছনের পাতায় ছবি দেখতে পেয়ে ভদ্রমহিলাদ্বয় আর ধৈর্য ধরে চুপ করে বসতে পারলেন না। সাহিত্যিককে চিনতে পেরে তাঁর সাহিত্য রচনা থেকে আরম্ভ করে চেহারা, অর্থ সব কিছু সম্বন্ধে জানতে গিয়ে ওঁকে ব্যতিব্যস্ত করে তুললো।
দুজনই অত্যন্ত বাচাল। ঠিক এই সময় ট্রেনটা একটা সুড়ঙ্গের মধ্যে ঢুকে পড়ায় সমস্ত জায়গাটা অন্ধকার হয়ে গেল। এমনকি অন্ধকারে কেউ কাউকে দেখতে পাচ্ছে না। সাহিত্যিক আর অপেক্ষা না করে ওদের জব্দ করার জন্য নিজের হাতটা মুখে লাগিয়ে তীব্র একটা চুম্বনের শব্দ করেন। এদিকে ট্রেনটিও আলোতে এলো সুড়ঙ্গ পার হয়ে। কিন্তু দুজন মহিলারই অবস্থা হল অন্যরকম একে অপরের হিংসায় যেন দু’চোখ ফেটে আগুন বেরুচ্ছে। সাহিত্যিক এবার কথা বললেন, দেখুন, আপনাদের ব্যবহারে আমি অত্যন্ত আনন্দ পেলাম, কিন্তু আমার জীবনে একটা বড় আক্ষেপ রয়ে গেল, না জেনে কে আপনাদের মধ্যে আমকে চুম্বন করলেন?

Share