পূর্বকোণ স্পোর্টস ডেস্ক

গ্রুপ ‘বি’ থেকে একটি দল নিশ্চিত থাকলেও, গ্রুপ ‘সি’ থেকে কোন দুটি দল পরবর্তী রাউন্ডে যাবে একমাত্র শেষ রাউন্ডের পরই জানার উপায় ছিল। গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ঘরের মাঠে নাপোলির বিপক্ষে জয় পেয়েছে লিভারপুল। সেটা দলের তারকা খেলোয়াড় মোহামেদ সালাহ’র বীরত্বে। মাঠে নামার আগে হিসাব ছিল, ১-০ গোলে জিতলেই নকআউটের টিকিট পাওয়ার সম্ভাবনা, তবে কোনোভাবেই গোল হজম করা যাবে না। শেষ পর্যন্ত সেটাই করেছে ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগের দলটি। প্রথমার্ধে সালাহ’র করা গোলই ব্যবধান গড়ে দেয়। একই গ্রুপ থেকে চ্যাম্পিয়ন দল হিসাবে পরবর্তী রাউন্ডে পৌছেছে পিএসজি। এওয়ে ম্যাচে তারা হেলায় হারিয়েছে রেডস্টার বেলগ্রেডকে। দলের হয়ে গোল পেয়েছেন তিন মহারথীই। অর্থাৎ- নেইমার, কাইলিয়ান এমবাপে এবং এডিনসন কাভানি। একটি গোল হজম করে চার গোল করে ফরাসি চ্যাম্পিয়নরা। গ্রুপ ‘বি’ থেকে চ্যাম্পিয়ন দল হিসেবে নকআউটে আগেই পৌঁছে গিয়েছিল বার্সেলোনা। শেষ ম্যাচ ছিল শুধুই নিয়মরক্ষার। অন্যদিকে বার্সা নিশ্চিত হলেও দ্বিতীয় দল হিসাবে কারা যাবে তা ছিল অনিশ্চিত। লড়াইয়ে ছিল টটেনহ্যাম হটস্পার এবং ইন্টার মিলান। পরশু রাতে কাতালানদের ঘরের মাঠ ন্যু ক্যাম্পে ১-১ গোলে ড্র করেছে ইংলিশ ক্লাবটি। তাতেই নকআউট নিশ্চিত হয় তাদের। অপর ম্যাচে ঘরের মাঠে পিএসভি-র কাছ আটকে যায় ইন্টার মিলান। বিপক্ষের লোহানোর গোলে পিছিয়ে পরে ইতালির দলটি। ৭৩ মিনিটে ইকার্দি সমতা ফেরালেও জিততে পারেনি তারা। শেষ পর্যন্ত টটেনহ্যাম এবং ইন্টার দু’দলই ৮ পয়েন্টে শেষ করে, গ্রুপ পর্বের শেষে পয়েন্ট সমান ও গোল পার্থক্য একই হলেও হেড-টু-হেডের বিচারে পরবর্তী রাউন্ডে যায় টটেনহ্যাম।
এছাড়া গ্রুপ ‘এ’ থেকে দ্বিতীয় রাউন্ডে গেছে বরুসিয়া ডর্টমুন্ড ও এথলেটিকো মাদ্রিদ। ক্লাব ব্রুজের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করেছে ডিয়েগো সিমিওনের দল। আর ফরাসি ক্লাব মোনাকোকে ২-০ হারিয়ে নকআউট নিশ্চিত করে জার্মান ক্লাব ডর্টমুন্ড। গ্রুপ ডি থেকে দ্বিতীয় রাউন্ডে গেছে এফসি পোর্তো এবং শালকে জিরোফোর। তুর্কি ক্লাব গ্যালতাসারেকে ৩-২ গোলে হারিয়ে দ্বিতীয় রাউন্ড নিশ্চিত করে পর্তুগিজ ক্লাব পোর্তো। আর রাশিয়ান লোকোটিভ মস্কোকে ১-০ গোলে হারায় জার্মান শালকে।

Share