নিজস্ব প্রতিবেদক

নগরীর পাঁচলাইশে এএনজেড প্রপার্টিজ লিমিটেডের নির্মাণাধীন আবাসন প্রকল্প ‘কাজী এনক্লেভ’-এ শুরু হয়েছে ৫ দিনব্যাপী সেলস কার্নিভাল। কার্নিভালে ফ্ল্যাট বুকিং দিলেই পুরো পরিবারের জন্য থাকছে সিঙ্গাপুর ভ্রমণের রিজেন্ট এয়ারের ঢাকা-সিঙ্গাপুর-ঢাকা এয়ার টিকেট। গতকাল বুধবার বিকালে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের (চমেক) পূর্ব গেট সংলগ্ন নির্মাণাধীন প্রকল্প ‘কাজী এনক্লেভ’-এ কার্নিভালের উদ্বোধন করেন অনুষ্ঠনের প্রধান অতিথি

দৈনিক পূর্বকোণের প্রকাশক ও পরিচালনা সম্পাদক জসিম উদ্দিন চৌধুরী। তিনি বলেন, ‘অর্থ উপার্জনের অনেক উপায়ই আছে। কিন্তু যেকোন ব্যবসার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়টি হলো গ্রাহককে দেয়া অঙ্গিকার বাস্তবায়ন করা । আমি জানি, এএনজেড প্রপার্টিজ এ ব্যাপারে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ।’
এএনজেড প্রপার্টিজের চেয়ারম্যান মো. ইয়াছিন আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন সিটি কর্পোরেশনের চকবাজার ওয়ার্ড কাউন্সিলর সৈয়দ গোলাম হায়দার মিন্টু, পাঁচলাইশ আবাসিক এলাকা কল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. আবু সৈয়দ সেলিম।
এএনজেড প্রপার্টিজের চীফ অপারেটিং অফিসার (সিওও) মো. মাহমুদুল হক বলেন, ‘এএনজেড প্রপার্টিজ ইতিমধ্যে ঢাকা ও চট্টগ্রামে প্রায় দুই শতাধিক আবাসন প্রকল্প নির্মাণ এবং হস্তান্তর করেছে। ‘কাজী এনক্লেভ’ এএনজেড প্রপার্টিজের একটি সিগনেচার প্রজেক্ট হিসেবে নির্মিত হচ্ছে। ইতিমধ্যে প্রকল্পের কাজ প্রায় ৭০ শতাংশ সম্পন্ন হয়েছে। প্রকল্পটির ডিজাইন করেছে ‘ডিকন ডিজাইন স্টুডিও’। ডাবল হাইটের দক্ষিনমুখী ১৪ তলার এই এপার্টমেন্ট ভবনে থাকবে ৪৮টি এপার্টমেন্ট এবং কার্গো লিফটসহ মোট ৩টি লিফট, বিলিয়ার্ড জোন, জিমনেশিয়াম, কমিউনিটি হল। আগামী ২০২০ সালের ডিসেম্বরে ফ্ল্যাট হস্তান্তরের লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে।
ফ্ল্যাট বুকিং-এর সুবিধার্থে কাজী এনক্লেভ-এ আগামী ১০ ডিসেম্বর পর্যন্ত চলবে সেলস কার্নিভাল। বুকিং দিলেই সিঙ্গাপুর ভ্রমণের জন্য রিজেন্ট এয়ারের ঢাকা-সিঙ্গাপুর-ঢাকা এয়ার টিকিট ফ্রি দেয়া হচ্ছে পুরো পরিবারের জন্য। এছাড়াও ক্যাশ ডিসকাউন্ট, পূর্ণাঙ্গ কিচেন কেবিনেটসহ নানা অফার থাকবে।
অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন এএনজেড প্রপার্টিজের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) শাহ আতিকুর রহমান, প্রধান প্রকৌশলী গোলাম মোর্শেদ প্রমুখ। এছাড়া অনুষ্ঠানে প্রমোশনার পার্টনার হিসাবে রিজেন্ট এয়ারওয়েজের পক্ষে ডিএমডি সালমান হাবিব, জিএম সুব্র কান্তি সেন শর্মা, গৃহঋণ প্রদানকারী আর্থিক প্রতিষ্ঠানের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং নগরীর বিভিন্ন পর্যায়ের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

Share