টেস্টে ব্যর্থ হলেও ওয়ানডেতে শক্তিশালী ওয়েস্ট ইন্ডিজ। হতাশা কাটিয়ে ওয়ানডে সিরিজে ঘুরে দাঁড়াতে মরিয়া সফরকারীরা। ওয়ানডেতে টাইগারদের বড় লক্ষ্য ছুঁড়ে দিতে চায় সফরকারীরা। সংবাদ সম্মেলনে এমনটাই জানিয়েছেন দলের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান শাই হোপ। মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে গতকাল অনুশীলন শেষে নিজেদের লক্ষ্যের কথা জানান হোপ, ‘ধারাবাহিকতাই চাবিকাঠি। আমাদের সবাইকে ভালভাবে এগিয়ে আসা জরুরী এবং বোর্ডে বড় একটা লক্ষ্য তুলে ফেলা দরকার। যাতে বোলাররা দারুন বোলিং করার মতো কিছু পায় সেটা নিশ্চিত করা দরকার। বাংলাদেশে হয়তো কিছুটা ভিন্ন ধরণের উইকেট। কিন্তু একই ব্যাপারগুলোর প্রয়োগ ঘটাতে হবে। বোলারদেরই ব্যাটসম্যান হিসেবে কিছু করার চেয়ে আমাদের ইনিংসের মধ্যবর্তী সময়ের মধ্যেই বড় কিছু করতে হবে।’ টেস্ট সিরিজে বাংলাদেশি স্পিনারদের বিপক্ষে বেশ কঠিন সংগ্রাম করতে হয়েছে উইন্ডিজের ব্যাটসম্যানদের। ভারতেও ছিল একই দশা। ২-০ ব্যবধানেই হারে তারা। এরপর ওয়ানডে সিরিজে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছিল দলটি। প্রথম ওয়ানডে হারার পরের ম্যাচে টাই এবং তৃতীয় ম্যাচে জয়ই তুলে নিয়েছিল দলটি। যদিও শেষ দুই ম্যাচে লড়াই করতে পারেনি ক্যারিবিয়ানরা। তবে টেস্টের দুঃস্বপ্ন ভুলে ওয়ানডে সংস্করণে ঘুরে দাঁড়াতে প্রত্যয়ী উইন্ডিজ। নিজেদের সেরাটা খেলতে পারলে জয় তাদেরই হবে এমনটাই বিশ্বাস করেন হোপ, ‘অনেকটা নিশ্চিতভাবেই জানি যে আমরা যেকোন দলের বিপক্ষেই নামিনা কেন তাদের বিরুদ্ধে জয় তুলে নিতে হবে। অবশ্যই আমাদের সেরাটা নিয়ে এগিয়ে আসতে হবে এবং যে বিষয়গুলো জানি সেসব করতে হবে। আমরা যদি নিজেদের সেরা ক্রিকেট খেলি, আমরা জানি বিজয়ী হয়ে ফিরে আসব।’ তবে ক্যারিবিয়ানদের যত দুশ্চিন্তা উইকেট নিয়েই। টেস্ট সিরিজে রীতিমতো তাদের নাকানিচুবানি খাইয়ে ছেড়েছে টাইগার স্পিনাররা। তবে ওয়ানডেতে কিছুটা ভালো উইকেটই আশা করছেন হোপ। তবে সবকিছু মোকাবেলার জন্য প্রস্তুত তারা, ‘বাংলাদেশে সবাই একই আশা করে যে বল অনেক বেশি ঘুরবে। কিন্তু এরপরও আমাদের নির্দিষ্ট দিন পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে যে খেলার জন্য কি থাকছে। আমরা হয়তো স্পিনই আশা করতে পারি এবং ভিন্ন ধরণের কিছুও হতে পারে। তাই আমাদের যত মৌলিকতা আছে সেসব আয়ত্ব করতে হবে এবং তারা আমাদের দিকে যেটাই ছুঁড়ে দিক সেটার জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে।’

Share