নিজস্ব প্রতিবেদক

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে গতকাল সোমবার আওয়ামী লীগের দলীয় ফরম সংগ্রহ করেছেন আরো ২২ জন। গতকাল শেষ দিন পর্যন্ত মোট চার দিনে আওয়ামী লীগের ধানম-ীর রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে চট্টগ্রাম জেলার ১৬ আসন থেকে ২২৫ জন ফরম সংগ্রহ করেছেন। আগামীকাল বুধবার থেকে সম্ভাব্য প্রার্থীদের সাক্ষাতকারের জন্য ডাকা হবে।
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদপ্তর সম্পাদক এবং আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা জন্য গঠিত কোর কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়–য়া পূর্বকোণকে জানান, গতকাল সম্ভাব্য প্রায় সব প্রার্থী তাদের ফরম জমা দিয়েছেন। কারণ ফরম বিক্রির পাশপাশি জমা নেয়ার কার্যক্রমও চালু ছিল। তবে ফরম যেখানে জমা নেয়া হয়েছে, গতকাল সোমবার সেখানে অসম্ভব ভিড় ছিল। ভিড়ের কারণে কেউ কেউ জমা দিতে পারেননি। যারা ফরম জমা দিতে পারেননি তাদেরগুলি আজ মঙ্গলবার বিশেষ বিবেচনায় জমা নেয়া হবে। সম্ভাব্য প্রার্থীদের আগামী ১৪ তারিখ সাক্ষাতকারের জন্য ডাকা হবে। তিনি জানান, মনোনয়নবোর্ডে গতকাল আরো দুইজন সদস্য যুক্ত হয়েছেন। তারা হলেন : বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য আবদুর রাজ্জাক এবং কর্নেল (অব.) ফারুক খান।
আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা উপ-কমিটির সদস্য আরশেদুল আলম বাচ্চু পূর্বকোণকে জানান, দলীয় কার্যালয়ে উৎসবমুখর পরিবেশের ফরম বিতরণ ও জমা নেওয়া হচ্ছে। গতকাল পর্যন্ত চট্টগ্রামের ১৬ আসনে ২২৫টি ফরম বিক্রি করা হয়েছে। শেষদিন এই ১৬ আসনে ২২টি ফরম বিক্রি হয়েছে।
আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা উপ-কমিটির সদস্য সালাউদ্দিন সাকিব জানান, চট্টগ্রাম বিভাগের মোট ৮৩২ জন সম্ভাব্য প্রার্থী আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। ফরম বিক্রি বাবদ চট্টগ্রাম বিভাগ থেকে আওয়ামী লীগ পেয়েছে দুই কোটি ৪৯ লাখ ৬০ হাজার টাকা।
গতকাল সোমবার চট্টগ্রাম-২ (ফটিকছড়ি) আসনে আরো চার জন ফরম কিনেছেন। তারা হলেন চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এম আর আজিম, গোলাম রহমান, মো. ছালামত উল্লাহ চৌধুরী, মোহাম্মদ হাবিব উল্লাহ খান এবং মাহবুবুল আলম।
চট্টগ্রাম-৩ (সন্দ্বীপ) আসনে গতকাল সংগ্রহ করেছেন মোহাম্মদ আতিকুর রহমান। চট্টগ্রাম-৪ (সীতাকু-) আসনে মো. আবুল খায়ের শাহজাহান, অধ্যাপিকা নার্গিস আকতার। চট্টগ্রাম-৬ (রাউজান) আসনে ফরম কিনেছেন মোহাম্মদ ওসমান গণি চৌধুরী। চট্টগ্রাম-৭ (রাঙ্গুনিয়া ও বোয়ালখালী উপজেলার শ্রীপুর ও খরণদ্বীপ ইউনিয়ন) আসনে গতকাল ফরম নিয়েছেন ডা. কাজী মো. ইউনুছ। চট্টগ্রাম-৮ (বোয়ালখালী-চান্দগাঁও) আসনে মো. শওকত ইকবাল চৌধুরী। চট্টগ্রাম-৯ (কোতোয়ালী) আসনে মাহাবুবুল আলম। চট্টগ্রাম-১০ (হালিশহর-ডবলমুরিং) আসনে এ কে এম রেজাউল করিম ভুঁইয়া, মাহবুবুল আলম, মোহাম্মদ রেজওয়ান এবং মোহাম্মদ তৈয়ব উদ্দিন ভুঁইয়া। চট্টগ্রাম-১১ (বন্দর-পতেঙ্গা) আসনে নুরুল আলম এবং রাশেদুল হাসান। চট্টগ্রাম-১৩ (আনোয়ারা-কর্ণফুলী) আসনে আবুল কালাম চৌধুরী। চট্টগ্রাম-১৫ (সাতকানিয়া- লোহাগাড়া) আসনে মোস্তফা রফিকুল ইসলাম। চট্টগ্রাম-১৬ (বাঁশখালী) আসনে নিগার সুলতানা এবং এসএম রিয়াজ উদ্দিন চৌধুরী।
দলীয় সূত্র জানায়, গত চারদিনে চট্টগ্রাম-১ (মিরসরাই) আসনে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন নয়জন, চট্টগ্রাম-২ (ফটিকছড়ি) আসনে ২৬ জন, চট্টগ্রাম-৩ (সন্দ্বীপ) আসনে ১৪ জন, চট্টগ্রাম-৪ (সীতাকু-) আসনে ১৬ জন, চট্টগ্রাম-৫ (হাটহাজারী) আসনে ১০ জন, চট্টগ্রাম-৬ (রাউজান) আসনে চারজন, চট্টগ্রাম-৭ (রাঙ্গুনীয়া) আসনে চারজন, চট্টগ্রাম-৮ (বোয়ালখালী-চান্দগাঁও) আসনে ১৭ জন, চট্টগ্রাম-৯ (কোতোয়ালী-বাকলিয়া) আসনে ২৬ জন, চট্টগ্রাম-১০ (হালিশহর-ডবলমুরিং) আসনে ১৬ জন, চট্টগ্রাম-১১ (বন্দর-পতেঙ্গা) আসনে ১৭ জন, চট্টগ্রাম-১২ (পটিয়া) আসনে নয়জন, চট্টগ্রাম-১৩ (আনোয়ারা-কর্ণফুলী) আসনে চারজন, চট্টগ্রাম-১৪ (চন্দনাইশ-সাতকানিয়া) আসনে ২৩ জন, চট্টগ্রাম-১৫ (সাতকানিয়া-লোহাগাড়া) আসনে ১৮ জন, চট্টগ্রাম-১৬ (বাঁশখালী) আসনে ১২ জন মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন।

Share
  • 112
    Shares