নিজের শহর সিলেট থেকে বিদায়ের ঘোষণা দিয়েছিলেন। পাঁচদিন পর কক্সবাজারে ১৮ বছরের ক্রিকেট ক্যারিয়ারের শেষ টানলেন রাজিন সালেহ। শেষের পথে জাতীয় ক্রিকেট লীগে দুই ইনিংসে অর্ধশতক করে বিদায়টা রঙিন করে তুললেন বাংলাদেশের অভিষেক টেস্টের দ্বাদশ ক্রিকেটার। ষষ্ঠ রাউন্ডের শেষদিনে ঢাকা বিভাগের সঙ্গে ম্যাচের পয়েন্ট ভাগাভাগি করেছে সিলেট। আট দলের আসরে তাদের অবস্থান সপ্তম। কিন্তু এতসব ছাপিয়ে ম্যাচটা হয়ে গেছে রাজিন সালেহর। প্রথম ইনিংসে ৬৭ রানের পর দ্বিতীয় ইনিংসে খেলেছেন ৮৭ রানের ঝলমলে ইনিংস। ২২৪ বল খেলে শুভাগত হোমের বলে বোল্ড হয়ে শতক হাতছাড়ার আক্ষেপে পুড়েছেন তিনি। প্রথম ইনিংসে ২৩৮ রানের পর রাজিনের ৮৭ রানের ইনিংসটির সঙ্গে জাকির আলীর ৭৭ ও সোহানুর রহমানের ৭০ রানে ভর করে দ্বিতীয় ইনিংসে ৬ উইকেটে ৩০৩ রান তোলে সিলেট। শেষ দিনে দুই সেশন পার হয়ে যাওয়ার পর দ্বিতীয়বারের মতো আর ব্যাটিংয়ে নামার যুক্তি খুঁজে পাননি ঢাকা অধিনায়ক নাদিফ চৌধুরী। মেনে নেন ড্র। অমীমাংসিতভাবে শেষ হয়েছে খুলনা-রংপুর ও ঢাকা মেট্রো-চট্টগ্রামের ম্যাচ দুটিও। কক্সবাজারে শামসুর রহমানের ১২১ রানের ইনিংসটির কল্যাণে ৬ উইকেটে ২৬১ রানে ইনিংস ঘোষণা করে ঢাকা মেট্রো। চট্টগ্রামের সামনে লক্ষ্য দাঁড়ায় ২৪৫ রানের। জবাবে ৪ উইকেট হারিয়ে ১৪২ রান পর্যন্ত এগোতেই শেষ দিনের আলো। পয়েন্ট ভাগাভাগি করে দুই দল। একই ঘটনা খুলনা-রংপুর ম্যাচেও। বগুড়ায় নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ২৮২ রানে অলআউট হয়ে রংপুরকে ২৯৫ রানের লক্ষ্য দেয় খুলনা। জবাবে ৬ উইকেটে ১৮৪ রান তোলার পর আলো কমে যাওয়ায় ম্যাচ ড্র ঘোষণা করা হয়।

Share