কেদারনাথ সিনেমার মাধ্যমে বলিউডে পা রাখতে চলেছেন সারা আলী খান। কয়েকদিন আগে প্রকাশিত হয়েছে সিনেমাটির টিজার। বেশ সাড়াও ফেলেছে এটি।
এদিকে সারার প্রথম সিনেমা নিয়ে বেশ উচ্ছ্বসিত তার মা অমৃতা সিং। ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যমে দেয়া সাক্ষাৎকারে নিজের উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে তিনি বলেন, ‘আমি গর্বিত যে সবাই তার প্রশংসা করছে।
আমার অনুভূতি কী তা মিডিয়ার সামনে প্রকাশ করতে বিব্রত লাগছে। এ জন্য আমার প্রকৃত অনুভূতি প্রকাশ করতে পারছি না। তবে একজন মা হিসেবে আমি আবেগাপ্লুত এবং গর্বিত। এখন সবকিছু দর্শকের
ওপর।’ কেদারনাথ সিনেমার প্রথম লুক প্রকাশের পর অনেকেই সারার সঙ্গে তার মায়ের তুলনা করতে শুরু করেন। এ প্রসঙ্গে অমৃতা সিং বলেন, ‘আমার বিশ্বাস সারা অনেক ভালো করবে। আমি চাই সে
সবসময় বিনয়ী থাকবে এবং কাজের প্রতি লক্ষ্যস্থির রাখবে। যদিও দিন শেষে এটি অনেক কঠিন কাজ। তাই তাকে ঠিক পথে থেকে সঠিক সিনেমাটি বেছে নিতে হবে।’
টু স্টেটস সিনেমাখ্যাত এ অভিনেত্রী চান অন্য কারো পরিচয়ে নয় বরং নিজের পরিচয় গড়ে তুলবে সারা। তিনি বলেন, ‘ওই দিনটিই হবে সেরা দিন। সন্তানের এমন স্বীকৃতি বাবা-মায়ের জন্য কি বড় প্রাপ্তি
নয়? সারা জাত অভিনয়শিল্পী। সে সবসময় আয়নার সামনে খুব মজার অভিনয় করত। আমরা জানতাম, সে একদিন অভিনেত্রী হবে।’ কেদারনাথ সিনেমায় সারার বিপরীতে অভিনয় করছেন সুশান্ত সিং
রাজপুত। তার চরিত্রের নাম মনসুর। তিনি একজন পিঠাও (কেদারনাথ মন্দিরে তীর্থ যাত্রীদের পিঠে বহন করে)। অন্যদিকে সারা আলী খানের নাম মুকু।
সিনেমার গল্পে দেখা যায়, মুকু কেদারনাথ মন্দির দর্শন করতে আসে। মনসুর ধর্মীয় ও সামাজিক ভেদাভেদ ভুলে পিঠাওয়ের কাজ করে। মুকু ও মনসুর পরস্পরের প্রেমে পড়ে এবং তাদের লড়াই চালিয়ে যায়।
সিনেমাটির প্রেক্ষাপট ২০১৩ সালে কেদারনাথে হওয়া ভয়াবহ বন্যা।
কেদারনাথ সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন অভিষেক কাপুর। আগামী ৭ ডিসেম্বর মুক্তি পাচ্ছে সিনেমাটি।

Share