তার বাম হাতের কনিষ্ঠা আঙুলই যেন দেশের টক অব দ্য ক্রিকেট। গত কয়েক দিন ক্রিকেটাঙ্গনে তুমুল আলোচনার বিষয় সাকিব আল হাসানের হাতের আঙুলের সংক্রমণ, চিড় ধরা কিংবা অস্ত্রোপচার। যে কারণে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনও মিডিয়ার সামনে এ নিয়ে দীর্ঘক্ষণ বক্তব্য দিয়েছেন। নানা কারণ ব্যাখ্যা করেছেন। অবশ্য তার আগেই হাতের আঙুলের চিকিৎসার জন্য অস্ট্রেলিয়া যান সাকিব। অন্তত এক সপ্তাহ অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে চিকিৎসা শেষে দেশে ফিরে আসার কথা তার। অস্ট্রেলিয়ান ডাক্তার যদিও জানিয়ে দিয়েছেন সাকিবের আঙুলে আপাতত অস্ত্রোপচারের প্রয়োজন নেই। বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বলেছেন, ‘এরপরও সাকিবের যদি মন না মানে, তাহলে সে অস্ত্রোপচার করাতে পারে।’ দুদিন আগেও সাকিব আল হাসান নিজের ফেসবুক আইডিতে ছবি পোস্ট করেছেন, তার হাতে ক্যানোলা লাগানো। হাসপাতালের বেডে শুয়ে আছেন। অন্য একটি ছবিও ভাইরাল হয়। যেটাতে দেখা গিয়েছিল কালো সোয়েটার পরা সাকিব শুয়ে আছেন হাসপাতালের বেডে। ওই সময়ই জানা গেছে, সাকিবের হাতের সংক্রমণ ধীরে ধীরে ভালোর দিকে। এমনকি পরিস্থিতি যা, তাতে হাতের আঙুলে অস্ত্রোপচার না করলেও চলবে। এসবই পুরনো খবর। সাকিবের অবস্থা যে উন্নতির দিকে, সেটা তার আজকের ছবি দেখলেই বোঝা যায়। সাকিব আল হাসান নিজের ফেসবুক পেজেই ঘণ্টা দুয়েক আগে ছবিটি পোস্ট করেন। সুন্দর পাজামা-পাঞ্জাবি এবং কোটি পরা সাকিব আল হাসান সোফায় বসে রয়েছেন কন্যা আলাইনা হাসান অব্রিকে নিয়ে। যদিও দেখা যাচ্ছে, বাম হাতের কনিষ্ঠা আঙুল জুড়ে ব্যান্ডেজ বাধা। তবে কন্যাকে নিয়ে তোলা হাসিমাখা মুখটাই অনেক কিছু বলে দিচ্ছে। বোঝাই যাচ্ছে, আঙুলের ইনফেকশনের অবস্থা এখন ভালোর দিকে। ভক্ত-সমর্থকরাও মন্তব্য করে ভরিয়ে দিচ্ছে সাকিবের পোস্ট। সেখানে অধিকাংশই লিখছেন, ‘দ্রুত সুস্থ হয়ে আবার খেলার মাঠে ফিরে আসুন সাকিব আল হাসান।’ কেউ কেউ লিখেন, ‘হাজি সাব আপনার এই হাসিমাখা মুখখানা সারাজীবন দেখতে চাই।’-ইন্টারনেট

Share