নিজস্ব সংবাদদাতা রাঙ্গুনিয়া

ওমানে মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় রাঙ্গুনিয়া, রাউজান হাটহাজারীর প্রবাসীর মৃতু্যৃ হয়েছে। এই ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও একজন। নিহতরা হলেন, রাঙ্গুনিয়া উপজেলার বেতাগী ইউনিয়নের সিকদারপাড়া এলাকার মোহাম্মদ সৈয়দয়ের পুত্র ইয়াকুব আলী (৩২), হাটহাজারী উপজেলার মোহাম্মদ নাছের (৩৫), রাউজান উপজেলার নম্বর রাউজান ইউনিয়নের নাতোয়ান বাগিচা এলাকার আলম বাড়ির আবু তৈয়বের পুত্র মোহাম্মদ খোরশেদ (২৬) আহত ব্যক্তির নাম আহমদ উল্লাহ (৩৫) তিনি হাটহাজারী উপজেলার আমান বাজার এলাকার আব্দুর রউফের পুত্র।
বুধবার (১২ সেপ্টেম্বর) ওমানের স্থানীয় সময় বিকেল সাড়ে ৫টায় কর্মস্থল থেকে আহমদ উল্লাহ গাড়ি করে বাসায় ফিরছিলেন ইয়াকুব, নাছের খোরশেদ। তারা তিনজন ওমানে একটি গ্যারেজ চালাতেন। ফেরার পথে ওমানের রাজধানী মাস্কাট শহরের অদূরে আলখাবুরা নামক স্থানে এলে তাদেও গাড়িটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পাশের একটি গাছের সাথে ধাক্কা খায়। এতে ধুমড়েমুচড়ে যায় গাড়িটি। ঘটনাস্থলেই গাড়িতে থাকা এই তিন আরোহীর মৃতু্যৃ ঘটে। ঘটনায় গুরুতর আহত ড্রাইভার আহমদ উল্লাহ আশঙ্কা জনক অবস্থায় ওমানের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন বলে জানা যায়।
রাঙ্গুনিয়া বেতাগীর ওমান প্রবাসী আবদুল আজিজ বলেন, ‘রাঙ্গুনিয়ার নিহত ইয়াকুব গত ১০ বছর আগে ওমানে গিয়েছিলো। সেখানে একটি গ্যারেজ চালাতো। গত আড়াই বছর পূর্বে সে উপজেলার পোমরা ইউনিয়নের সাইনিপাড়া এলাকা থেকে বিয়ে করেছিল। তার দেড় বছরের একটি কন্যা সন্তানও রয়েছে। তিন ভাই, তিন বোনের মধ্যে সে পঞ্চম।
রাউজানের বাসিন্দা রবিউল হোসেন আবির বলেন, নিহত রাউজানের প্রবাসী খোরশেদ আলম গত বছর আগে ওমানে গিয়েছিলেন। দুই ভাই এক বোনের মধ্যে সে দ্বিতীয়। নিহত তিন বাংলাদেশির লাশ দেশে আনার প্রক্রিয়া চলছে বলে ওমানে অবস্থানরত তাদের সহকর্মীরা জানান

Share
  • 45
    Shares