মার্কিন ডলারের বিপরীতে ভারতীয় রুপির দরপতন অব্যাহত রয়েছে। এখন এক ডলারে ৭৩ রুপি পাওয়া যাচ্ছে। এটি হচ্ছে ডলারের বিপরীতে রুপির রেকর্ড পরিমাণ সর্বনিম্ন দর। এতে করে ভারতের বৈদেশিক বাণিজ্যে যে প্রভাবই পড়ুক না কেন ফুরফুরে মেজাজে আছেন এদেশিয় পর্যটকরা। কারণ ডলারের বিপরীতে এত রুপি আগে কখনো পাওয়া যায়নি। ইন্টারনেট মানি এক্সচেঞ্জ সূত্রে জানা গেছে, গত ১১ সেপ্টেম্বর এক মার্কিন ডলারে বিনিময়ে ভারতীয় মুদ্রার মূল্য এসে দাঁড়ায় ৭২ দশমিক ৬৬ রুপি। যা এক মাস আগেও ছিল ৬৯ দশমিক ১০ রুপি। আর এক বছর আগে ছিল ৬৩ দশমিক ৯৮ রুপি। এ হিসাবে এক মাসের ব্যবধানে রুপির মান কমেছে ৫ শতাংশ আর বছরের ব্যবধানে কমেছে প্রায় সাড়ে ১৩ শতাংশ। অর্থাৎ, এখন ডলার কম খরচ করে বেশি রুপি পাওয়া যাচ্ছে।এদিকে বাংলাদেশি মুদ্রার বিপরীতে ভারতীয় রুপির মানও ধারাবাহিক কমছে। ১১ সেপ্টেম্বরের তথ্য অনুযায়ী, প্রতি রুপিতে পাওয়া যাচ্ছে ১ টাকা ১৬ পয়সা। এক বছর আগেও প্রতি রুপি পেতে বাংলাদেশি মুদ্রায় ব্যয় করতে হতো ১ টাকা ২৮ পয়সা। বিদেশি পর্যটকদের সারিতে প্রথম স্থানে রয়েছে বাংলাদেশিরা।ভারতের পর্যটন মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, ২০১৭ সালে মোট ২০ লাখ বাংলাদেশি ভারতে সফর করেছে। তার মানে দেশটির বিদেশি পর্যটকদের এক-পঞ্চমাংশ বাংলাদেশি। ২০১৩ সালে যেখানে সোয়া পাঁচ লাখ বাংলাদেশি ভারত সফর করেছিল, সেখানে ২০১৭ সালে তা ২০ লাখ।সম্প্রতি ভারত সরকার বাংলাদেশিদের জন্য ভিসা প্রক্রিয়া সহজ করেছে। ডলারের মানও রুপির তুলনায় বেড়েছে। সব মিলিয়ে আগামীতে বাংলাদেশিদের ভারতে ভ্রমণ আরও বাড়বে।

Share
  • 1
    Share