নীড়পাতা » স্থানীয়-২ » সীতাকুন্ডে নারী শ্রমিকের মৃত্যু দুর্ঘটনায়

সীতাকুন্ডে নারী শ্রমিকের মৃত্যু দুর্ঘটনায়

নিজস্ব সংবাদদাতা সীতাকু-

সীতাকু-ে একটি কারখানায় দুর্ঘটনায় এক নারী শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল (মঙ্গলবার) সকালে তার লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহতের নাম জহুরা আক্তার (১৫)। তিনি নোয়াখালী বেগমগঞ্জ থানার মধ্যম জিবতলী গ্রামের জহুরুল ইসলামের কন্যা। এদিকে জানা গেছে, জহুরার মৃত্যু হয়েছে সোমবার বিকালে। কিন্তু কারখানা কর্তৃপক্ষ পুলিশকে খবর দিয়েছে গতকাল সকালে। এ নিয়ে রহস্যের সৃষ্টি হয়েছে। পুলিশ লাশ পোস্টমর্টেমের জন্য প্রেরণ করেছে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার সোনাইছড়ি ইউনিয়নের মদনহাট এলাকায় এসএল এডভান্স টেকনোলজি কারখানার পেছনে অবস্থিত মেসার্স বরিশাল বোন মেল্ড নামক হাড়গুড়ো করার একটি কারখানায় কর্মরত ছিলেন নারী শ্রমিক জহুরা। গত সোমবার বিকালে কারখানাতেই তার মৃত্যু হয়। কিন্তু রহস্যজনক কারণে ঘটনাটি চেপে যেতে চেষ্টা করে কারখানা কর্তৃপক্ষ। এতে স্থানীয়রা মেয়েটিকে হত্যার অভিযোগ তুললে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। শেষে বাধ্য হয়ে গতকাল (মঙ্গলবার) সকালে পুলিশকে খবর দেয় কারখানা কর্তৃপক্ষ। খবর সীতাকু- থানার এসআই মো. হানিফ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে বিকালে পোস্টমর্টেমের জন্য প্রেরণ করেন। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন ওসি শেখ মো. দেলোয়ার হোসেনও। জানতে চাইলে এসআই হানিফ বলেন, সোমবার বিকাল ৪টায় নারী শ্রমিক জহুরা হাড় তৈরির কারখানায় কাজ করার সময় অসতর্কতাবশত ওপরের ফ্যানের সাথে তার ওড়না জড়িয়ে যায়। এতে আঘাত পেয়ে তার মৃত্যু হয় বলে আমাদের ধারণা। তবে তারা ঘটনার সাথে সাথে খবর দেয়নি। মঙ্গলবার সকালে আমাদের খবর দিলে সুরতহাল তৈরিশেষে বিকালে আমি পোস্টমর্টেমের জন্য প্রেরণ করেছি। সীতাকু- থানার ওসি শেখ মো. দেলোয়ার হোসেন বলেন, বিভিন্ন অভিযোগ শুনে আমি নিজেই ঘটনাস্থলে গিয়েছি। মেয়েটি কাজ করার সময় ওপরের ফ্যানের সাথে অসতর্কতাবশত আঘাত লেগে তার মৃত্যু হয় বলেই মনে হচ্ছে। কিন্তু অনুমানের ওপর ভর করে অনেকে অনেক কথা বলছে। এ বিষয়ে মামলা দায়ের হবে বলে জানান তিনি।

রাঙ্গুনিয়ার পোমরা জামেউল উলুম

Share