নীড়পাতা » প্রথম পাতা » গলায় ফাঁস লাগানো মহিলার লাশ উদ্ধার মহেশখালীতে

পারিবারিক কলহের জের

গলায় ফাঁস লাগানো মহিলার লাশ উদ্ধার মহেশখালীতে

নিজস্ব সংবাদদাতা মহেশখালী

মহেশখালী উপজেলার মাতারবাড়ী ইউনিয়নের মগডেইল এলাকার নুরুল ইসলামের স্ত্রী মিনু আরা বেগম (৫০) নামের এক গৃহবধূ পারিবারিক কলহের জের ধরে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। গতকাল মঙ্গলবার দুপুর ১২ টার দিকে মাতারবাড়ী পূর্ব মগডেইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সাথে লাগায়ো পৈত্রিক ভিটয় লোমহর্ষক ঘটনা ঘটে। মাতারবাড়ী পুলিশ ক্যাম্পের আইসি আমিনুর রহমানের নেতৃত্বে পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করেছে।
জানা গেছে, পাশ^বর্তী ধলঘাটার বাসিন্দা নুরুল ইসলামের সাথে ইসলামী শরীয়াহ্ মোতাবেক মাতারবাড়ী মগডেইলের বাসিন্দা মৃত হামজা মিয়ার মেয়ে নিহত মিনু আরা বেগমের সাথে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে মিনু আরা বেগমের ভিটায় দুজনেই বসবাস করে আসছিলেন। তাদের দাম্পত্য জীবনে ২টি ছেলে সন্তান জন্মলাভ করে। বেশ কিছুদিন ধরে স্বামীস্ত্রীর মধ্যে মনোমালিন্য দেখা দেয়। একপর্যায়ে ছেলেসহ স্ত্রীকে ফেলে নুরুল ইসলাম চট্টগ্রামে চলে যান। পরে বহু কষ্টে মিনু আরা বেগম ছেলেকে গড়ে তোলেন। বড় পুত্র করিমের বছর পূর্বে স্থানীয় ওয়াহিদা নামে এক মেয়ের বিয়ে হয়। সংসারে দেড়মাসের একটি শিশু রয়েছে। অবস্থায় বড় পুত্র করিমের সাথে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে কয়েকদিন পূর্বে সামান্য তর্কাতর্কি হয় বলে জানান নিহতের পুত্রবধূ ওয়াহিদা।
পুত্রবধূ স্থানীয় লোকজন জানান, বড় ছেলে করিম ঘটনার দিন ভোরে তার চাকুরিস্থল ডিউটি স্থানীয় কয়লা বিদ্যুৎ প্রকল্পে চলে যান। কিছুক্ষণ পর প্রতিবেশীর মাধ্যমে জানতে পারেন তার মা গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। প্রতিবেশীরা ধারণা করছেন, ছেলের সাথে অভিমান করে মা গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। মাতারবাড়ী পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই আমিনুর রহমান পূর্বকোণকে বলেন, গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় এক মহিলার লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করেছি

Share