নীড়পাতা » জেলা-উপজেলা-গ্রাম » ত্রাণের পর এবার ওষুধ বিক্রি করে দিচ্ছে রোহিঙ্গারা

এনজিও কর্মীদের বিরুদ্ধে দোষারোপ

ত্রাণের পর এবার ওষুধ বিক্রি করে দিচ্ছে রোহিঙ্গারা

নিজস্ব সংবাদদাতা, উখিয়া

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্য থেকে অনুপ্রবেশকারী রোহিঙ্গারা মিথ্যা অভিযোগ এনে এবার দোষারোপ করছে এনজিওদের। বিভিন্ন ক্যাম্পে আশ্রিত রোহিঙ্গা রোগীদের এনজিও কর্মীরা চিকিৎসা সেবায় অনিয়ম করছে বলে অভিযোগ তাদের।
অথচ সরকারি মেডিকেল টিম ছাড়াও রাতদিন রোহিঙ্গাদের চিকিৎসা সেবায় নিয়োজিত রয়েছেন একাধিক এনজিও সংস্থার ডাক্তার ও কর্মীরা। রোহিঙ্গা রোগীদের জন্য যথেষ্ট ওষুধ স্টক রয়েছে। রোগ অনুপাতে তাদের পর্যাপ্ত ওষুধ সরবরাহ করা হচ্ছে। নগদ টাকার জন্য দীর্ঘদিন ধরে ত্রাণ হিসেবে পাওয়া চাল, ডাল, কাপড়, সাবান, বালতি, ডেকচিসহ নিত্যপণ্য বিক্রি করে দিচ্ছে। এবার ফ্রি পাওয়া ওষুধগুলো নগদ টাকায় রোহিঙ্গারা বাইরে বিক্রি করে দিচ্ছে বলে জানা গেছে।
সূত্রে জানা গেছে, কুতুপালং ক্যাম্পে এক রোহিঙ্গার মৃত্যুকে কেন্দ্র করে ডাক্তাররা রোহিঙ্গাদের প্রতি মনোযোগ দিচ্ছে না বলে দাবী করে রোহিঙ্গারা জানায়, ডাক্তারদের কাছ থেকে কোন রূপ সাড়া পাওয়া যাচ্ছে না। ক্যাম্পে রোহিঙ্গারা বর্তমানে চিকিৎসা সংকটে দিনাতিপাত করছে। বিভিন্ন এনজিও সংস্থার লোকজন রোহিঙ্গাদের চিকিৎসার নাম করে ফান্ড সংগ্রহ করলেও তা রোহিঙ্গাদের সাহায্যার্থে ব্যয় করছে না। অনেক রোহিঙ্গা নিজের টাকা খরচ করে বাইরে প্রাইভেট ডাক্তার দেখাচ্ছে ও ওষুধ কিনছে। অপরদিকে স্থানীয় অধিবাসীরা জানান, বিভিন্ন মেডিকেল সেন্টার থেকে ফ্রি নিয়ে যাওয়া ওষুধগুলো নগদ টাকায় বাইরে বিক্রি করে দিচ্ছে রোহিঙ্গারা। আশ্রিত ক্যাম্পের বিভিন্ন ব্লকে গিয়ে এক শ্রেণীর ক্রেতা, দালাল স্বল্পদামে কিনে নিয়ে আসছে এসব ওষুধ।

Share