নীড়পাতা » অগোছালো » রেডিসনে রুনা লায়লার গানে মুগ্ধ ¯্রােতা

রেডিসনে রুনা লায়লার গানে মুগ্ধ ¯্রােতা

বর্ণিল আয়োজনে বাঙালির প্রাণের উৎসব ‘পহেলা বৈশাখ’ উদযাপন করেছে বন্দরনগরী চট্টগ্রামের পাঁচতারকা হোটেল রেডিসন ব্লু চিটাগং বেভিউ। ‘রঙের উৎসব বৈশাখ’ শিরোনামে রেডিসনের বর্ণাঢ্য এ আয়োজনের বড় চমক ছিলো কিংবদন্তী শিল্পী রুনা লায়লার পরিবেশনা। এছাড়াও বৈশাখী উৎসব উপলক্ষে বাঙালিয়ানা পরিবেশে প্রাতঃরাশ ও ভোজ, বাউলগান এবং সবপেশা ও শ্রেণির মানুষের মিলনমেলায় মুখরিত হয়ে উঠে পুরো রেডিসন। বৈশাখী আয়োজনকে ঘিরে হোটেলটিকে সাজানো হয় ভিন্ন আঙ্গিকে। প্রবেশ পথ থেকে শুরু করে লবি,রেস্টুরেন্টসহ সব জায়গা সাজানোতে ছিলো গ্রামীণ ঐতিহ্যের ছাপ। গ্রামীণ কুঁড়েঘর, গ্রামবাংলার ঐতিহ্যবাহী ঢেঁকি, শুকনো খড়ের গাদা, গরুর গাড়ির রেপ্লিকাসহ বাঁশ বেতের তৈরি রকমারি গ্রামীণ গৃহস্থালি উপকরণ দিয়ে তৈরি এ সাজ নজর কেড়েছে সবার।
পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে রেডিসনের খাবার মেনুতে সংযুক্ত করা হয় সব বাঙালিয়ানা খাবারের। ইলিশভাজা, কাঁচা আমের ভর্তা, শুটকিভর্তা, ইলিশ পাতুরি, পাবদা মাছের কোপ্তাকারি, গরু ও খাসির মাংসের কাবাব, কাঁচা আমের ডাল, কাজু বাদাম দিয়ে মুরগিভুনা, চিংড়ি মসলাকারী, মুরিঘণ্ট, লাওচিংড়ি, জিলাপি, রসগোল্লা, রসমালাই, সন্দেশ, কদমা, বুন্দিয়া, অমৃতি, চমচম, গজা, পিঠা, দইচিড়া, পাটি সাপটাপিঠা, গুরের পায়েসসহ আরো হরেক রকমের খাবার দিয়ে প্রাতঃরাশ এবং ভোজ সারেন অতিথিরা।
আয়োজনের প্রথম দিন শনিবার বাউল গানের পরিবেশনা থাকলেও দ্বিতীয় দিন রবিবার সন্ধ্যায় রেডিসনে সূরের মূর্চ্ছনা তোলেন বাংলা গানের জীবন্ত কীংবদন্তী শিল্পী রুনা লায়লা। প্রায় দুইঘণ্টাব্যাপী অনুষ্ঠিত তাঁর পরিবেশনায় নিজের জনপ্রিয় সবগান গেয়ে শ্রোতাদের বিমোহিত করেন এ গুণী শিল্পী।-বিজ্ঞপ্তি

Share