ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট কিম জং উনের ছোট বোন কিম ইয়ো জং শুক্রবার বিমানে করে দক্ষিণ কোরিয়ায় পৌঁছেছেন।
১৯৫০-৫৩ সালে কোরীয় যুদ্ধের অবসানের পর এই প্রথম উত্তর কোরিয়ার শাসক পরিবারের কেউ দক্ষিণ কোরিয়া সফরে গেলেন।
দক্ষিণ কোরিয়ার ইনচেওন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আজ কিমের বোনের ব্যক্তিগত বিমান অবতরণ করে।
উত্তর কোরিয়ার অলঙ্কারিক রাষ্ট্রপ্রধান কিম ইয়ং ন্যামসহ দেশটির শীর্ষপর্যায়ের কয়েকজন কর্মকর্তারা তার সফরসঙ্গী হয়েছেন। দক্ষিণ কোরিয়ার পিয়ংচ্যাংয়ে শুক্রবার থেকে শুরু হচ্ছে শীতকালীন অলিম্পিক- ২০১৮। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দিতেই ইয়ো জং সেখানে গেছেন। গত বছর উত্তরের ক্ষমতাসীন ওয়ার্কার্স পার্টির পলিট ব্যুরোতে পদোন্নতি পাওয়া এই নারীই দক্ষিণ কোরিয়ায় আসা কিম পরিবারের প্রথম সদস্য। আর কিম ইয়ং ন্যাম হলেন সীমানা পেরিয়ে দক্ষিণ কোরিয়ায় যাওয়া উত্তরের সবচেয়ে শীর্ষ কর্মকর্তা। রাজনীতিতে প্রভাবশালী ইয়ো জং এর উপস্থিতিতেই দুই কোরিয়ার খেলোয়াড়রা উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এক পতাকার নিচে হাঁটবেন। অলিম্পিক গেমসে উত্তর কোরিয়ার অংশগ্রহণের মধ্যে দিয়ে দুই দেশের সম্পর্কের বরফ গলবে বলে আশা করা হচ্ছে। ১৯৮৭ সালে জন্ম নেওয়া কিম ইয়ো জং ভাই কিমের চার বছরের ছোট। স্ইুজারল্যান্ডের বের্নেতে দুজন একই সময়ে পড়াশোনা করেছেন।
সাম্প্রতিক বছরগুলোতে ক্ষমতাকাঠামোতে দ্রুত উত্থান ঘটা এ নারীর মূল দায়িত্ব দলের প্রচার বিভাগে ভূমিকা রাখার মধ্য দিয়ে ভাইয়ের ভাবমূর্তি অক্ষুন্ন রাখা।