নগরীর ওয়াসা মোড়ে অবস্থিত প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র নাসিম আহমেদ সোহেল হত্যার দেড় বছর পার হয়েছে কিন্তু মূল হত্যাকারী একই বিশ্ববিদ্যালয়ের বিবিএর ছাত্র ইব্রাহিম সোহানকে ধরতে পারেনি পুলিশ। ২০১৬ সালের ২৯ মার্চ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে প্রকাশ্যে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাতে সোহেলকে হত্যা করে সোহান। ঘটনায় সোহেলের বাবা আবু তাহের বাদী হয়ে নগরীর চকবাজার থানায় ১৮ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। হত্যাকা অভিযুক্ত থাকার অপরাধে পুলিশ ছয় ছাত্রকে গ্রেপ্তার করেছে। তারা হলো : আসিফ, তামিম উর আলম প্রকাশ তামিম, আশরাফুল ইসলাম প্রকাশ আশরাফ, ওয়াহিদুজ্জামান প্রকাশ নিশান, জিয়াউল হায়দার চৌধুরী এসএম গোলাম মোস্তফা।
বিশ্ববিদ্যালয়ের সিসি ক্যামেরার ফুটেজে দেখা গেছে, সোহেলকে ছুরিকাঘাত করেছে একই বিশ্ববিদ্যালয়ের বিবিএর ছাত্র ইব্রাহিম সোহান। এজাহারভুক্ত পলাতক আসামিরা হলো : নোয়াখালির শফিক উল্লার ছেলে ই্রবাহিম প্রকাশ সোহান, রামুর শামছুল হকের ছেলে সাইফ উদ্দিন, হাটহাজারীর আবু তালেবের ছেলে আবু জাহের প্রকাশ উজ্জ্বল, শুলকবহরের মহিউদ্দিনের ছেলে নিজাম উদ্দিন প্রকাশ আবিদ, সাতাকানিয়ার বাজালিয়ার সাইকুল মোহাম্মদ তারেক, দেওয়ানবাজারের মৃত হাজী বদিরুল রহমানের ছেলে নুরুল ফয়সাল প্রকাশ স্যাম, সিইপিজেডের জাফর উল্লার ছেলে সাইফুল ইসলাম সাকিব, রামুর সিরাজুল ইসলামের ছেলে আবু ফয়েজ আর নিজাম রোডের শামছুল
হকের ছেলে রাশেদুল হক প্রকাশ ইরফান সাতকানিয়ার মৈশামুড়ার আহমদুল হকের ছেলে নাজমুল হক