স্বাধীনতার প্রশ্নে এম আজিজের এক দফাই আমাদের আজকের স্বাধীন বাংলাদেশ। এখন বাংলাদেশ রক্ষায় একই এক দফা হলো জঙ্গিবাদ যুদ্ধাপরাধীমুক্ত বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা। এতেই এম আজিজ এবং স্বাধীনতার জন্য আত্মত্যাগীকারী ৩০ লক্ষ বাঙালির স্বপ্নপূরণ সম্ভব হবে। গতকাল সকালে মরহুম এম. আজিজের ৪৭ তম মৃত্যুবাষির্কীতে হালিশহরস্থ তাঁর কবর প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত মহানগর আওয়ামী লীগের আলোচনা সভায় মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সিটি মেয়র নাছির উদ্দিন তাঁর ভাষণে বলেন, অগিঝরা একাত্তরের স্মৃতি নিয়ে আমরা যাঁরা বেঁচে আছি তাঁদেরকে জীবন সায়াহ্নে এসে নতুন প্রজন্মের হাতে মুক্তিযুদ্ধের বিজয় শিখা তুলে দিতে হবে। তা হলে আমরা মৃত্যুর পরও বাঁচবো। তিনি এম..আজিজের স্মৃতিচারণ করে বলেন, এম. আজিজ জন্মগ্রহণ না করলে ইতিহাস অন্যরকম হতো। বঙ্গবন্ধুর দফাকে দফায় পরিণত করে তিনি বাঙালি জাতিসত্তার ইতিহাসে আপন মহিমায় উদ্ভাসিত হয়ে আছেন। চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী সভাপতির বক্তব্যে বলেন, এম..আজিজ দেশে মাটি মানুষের স্বরাজ প্রতিষ্ঠার আদর্শিক বাতিঘর। আজিজজহুর আমাদের অহংকার। দুজনের পথ ধরেই ত্যাগ তিতীক্ষার ব্রত নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের অগ্রযাত্রাকে এগিয়ে নিতে হবে

মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান আল মাহমুদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন সহ সভাপতি আলহাজ নঈম উদ্দিন চৌধুরী, আলহাজ খোরশেদ আলম সুজন, ত্রাণ সমাজকল্যাণ সম্পাদক মো. হোসেন, কার্যনির্বাহী সদস্য মরহুমের পুত্র সাইফুদ্দিন খালেদ বাহার, বখতিয়ার উদ্দিন খান, মহানগর যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক দেলোয়ার হোসেন খোকা, থানা আওয়ামী লীগের রেজাউল করিম কায়সার, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের আবদুল মান্নান। এর আগে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে মরহুমের কবরে পুষ্পমাল্য অর্পণ, কোরআন খতম, দোয়া মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।
চসিক : গতকাল দুপুরে মরহুমের হালিশহরস্থ কবরে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ নাছির উদ্দীন কাউন্সিলরদের সাথে নিয়ে কবর জেয়ারত, পুষ্পমাল্য দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন এবং মোনাজাত করেন। এসময় প্যানেল মেয়র চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী, হাসান মুরাদ বিপ্লব, মোরশেদ আকতার চৌধুরী, আবুল হাশেম, সাবেক কাউন্সিলর মোহাম্মদ হোসেন, নুরুল আলম এবং চসিক জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. আবদুর রহিমসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।
উত্তরজেলা আওয়ামী লীগ : উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে সকাল ১১টা মরহুমের পারিবারিক কবরস্থানে পুষ্পস্তবক অর্পন করে দোয়া মোনাজাত করা হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নুরুল আলম চৌধুরী, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম সালাম, সহসভাপতি অধ্যাপক মঈন উদ্দীন, যুগ্ম সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আলহাজ জাফর আহমদ, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সহসম্পাদক মো. সেলিম উদ্দীন, মরহুমের পুত্র সাইফুদ্দীন খালেদ বাহার প্রমুখ।
জয় বাংলা সাংস্কৃতিক জোট : মহানগর শাখার উদ্যোগে মরহুমের কবরে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন মরহুমের পুত্র সাইফুদ্দীন খালেদ বাহার, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক এড. জিয়া উদ্দীন, চট্টগ্রাম বিভাগীয় সভাপতি মো. আলী আকবর, সহসভাপতি মো. আনোয়ার আজম, বিভাগীয় জয়েন্ট সেক্রেটারি মো. আলী, বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুল হাসান খান, মহানগর সভাপতি রেজাউল করিম বুলবুল, শামসুল হক, মো. শের খান, আরিফ নেওয়াজ, বিকাশ বড়য়া, মনজুর আলম, হালিশহর থানার সাধারণ সম্পাদক হাসান মুরাদ, আব্দুল আজিজ, পাভেল প্রমুখ।বিজ্ঞপ্তি