স্পোর্টস ডেস্ক

অনূর্ধ্ব১৯ এশিয়া কাপে বড় জয় পেয়ে বাংলাদেশ। স্বাগতিক মালয়েশিয়াকে ২৬২ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে যুবা টাইগাররা। কুয়ালালামপুরের বায়ুয়েমাস ওভালে বাংলাদেশ আগে ব্যাট করে উইকেটে ৩৩৫ রান সংগ্রহ করে। তার জবাবে পুরো ৫০ ওভারই ব্যাট করেছে মালয়েশিয়া। কিন্তু পাহাড় লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে দলটি সংগ্রহ করে উইকেটে মাত্র ৭৩ রান। সাইফ হাসানদের এটি টানা দ্বিতীয় জয়। নিজেদের প্রথম ম্যাচে নেপালকে উইকেটে হারিয়েছিল বাংলাদেশ। গতকাল সোমবার বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে ৭টায় শুরু হয় ম্যাচটি। টস জিতে বাংলাদেশকে আগে ব্যাট করতে পাঠায় স্বাগতিক মালয়েশিয়া। যুবা টাইগাররা উদ্বোধনী জুটিতে তুলে ৩১ রান। নাইম শেখ ফিরে যান ব্যাক্তিগত ১৩ রান করে। রানের ব্যবধানে ফিরে যান আরেক ওপেনার পিনাক ঘোষও (১২) এরপরের গল্পটা মালয়েশিয়ার বোলারদের জন্য শুধুই হতাশার। অধিনায়ক সাইফ হাসান তাওহিদ হৃদয় তৃতীয় উইকেটে গড়েন ১৯২ রানের জুটি। সাইফ ১০৩ বলে চার ছক্কায় ৯০ রান করে ফিরেন। হৃদয় ১২০ বলে চার ছক্কায় করেন ১২০ রান। এছাড়া অপরাজিত ৩৯ রান করেন আমিনুল ইসলাম। মাত্র ১৭ বলের ইনিংসে ৪টি ছক্কা ২টি চার হাঁকান তিনি। মালয়েশিয়ার বোলারদের মধ্যে সফল মোহাম্মদ হাফিজ। যিনি ওভার বল করেন ৭৮ রান দিয়ে নিয়েছেন উইকেট। এছাড়া উইকেট পান সাইদ আজিজ। জবাব দিতে নেমে অবাক করা ব্যাটিং মালয়েশিয়ার। ১১ রানেই প্রথম উইকেট হারায় দলটি। কিন্তু এরপর থেকে শুরু করে তারা ধীর লয়ে ব্যাটিং। যাতে জয়ের যেন কোন তাড়না ছিলনা তাদের। শেষ পর্যন্ত তাই উইকেটে ৭৩ রানের বেশি করতে পারেনি তারা। হয়তো পাহাড় লক্ষ্য দেখেই ভয় পেয়ে গিয়েছিল তারা। কিন্তু তাই বলে এই যুগে ৫০ ওভারে ৭৩ রান? মালয়েশিয়ার ওপেনার ভিরেনদিপ সিং একাই করেন ৪৬ রান। দলের অধিনায়ক তিনি। দলের বাকী যে নয় ব্যাটম্যান ব্যাট করলেন তারা সবাই মিলে করেছে ২১ রান। রান এসেছে অতিরিক্ত খাত থেকে। বাংলাদেশের বোলারদের মধ্যে শাখাওয়াত হোসেন সর্বোচ্চ উইকেট নিয়েছেন। আফিফ হোসেন নিয়েছেন উইকেটে। ১টি করে উইকেটে নেয়ছেন রনি হোসেন সাইফ হাসান। আজ সকাল সাড়ে ৭টায় গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে ভারতের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ