নিজস্ব সংবাদদাতা, চকরিয়া

চকরিয়া পৌরসভা প্রতিষ্ঠার পর দীর্ঘ ২৩ বছর ধরে ময়লা-আবর্জনা নিয়ে ভোগান্তিতে ছিলো পৌরসভার ব্যবসায়ীসহ লাখো মানুষ। যত্রতত্র আবর্জনা স্তূপ করে রাখতে বাধ্য হওয়ায় আবহওয়া দূষিত হয়ে পড়ছিল, বিপর্যয়ের মুখে ছিলো পরিবেশ। অবশেষে সেই ভোগান্তি থেকে পৌরবাসীকে রক্ষা করতে উদ্যোগ নিয়েছে পৌর প্রশাসন। এরই আলোকে ১২ জুলাই দুপুরে ‘গার্ভেজ ডাম্পিং স্টেশন’ উদ্বোধন করা হয়।
এ উপলক্ষে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জাফর আলম, বিশেষ অতিথি ছিলেন, চকরিয়া পৌরসভার মেয়র মো. আলমগীর চৌধুরী, চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নুরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমান, পৌরসভার প্যানেল মেয়র বশিরুল আইয়ুব, লক্ষ্যারচর ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা কাইছার, পৌরসভার কাউন্সিলর রেজাউল করিম, কাউন্সিলর মুজিবুল হক, চকরিয়া পৌরসভার সচিব মাসউদ মোর্শেদ, বিএমচর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান বদিউল আলম প্রমুখ।
চকরিয়া পৌরসভার সচিব মাসউদ মোর্শেদ বলেন, পৌরসভার দুই কিলোমিটার অদূরে লক্ষ্যারচর ইউনিয়নের ইসলামনগর এলাকায় ৪ একর জমির উপর স্থাপন করা হয়েছে গার্ভেজ ডাম্পিং স্টেশন। এই স্টেশন চালু করতে পৌরসভার মেয়র ও লক্ষ্যারচর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান চুক্তি বাস্তবায়ন করেন।
বর্তমানে মেয়রের দায়িত্বে রয়েছেন আওয়ামীলীগ নেতা মো. আলমগীর চৌধুরী। তিনি পৌরসভাকে মডেল পৌরসভায় রুপান্তর করতে ২০ কোটি টাকার প্রকল্প নিয়ে নালা-নর্দমাসহ জনগুরুত্বপূর্ণ বেশ ক’টি প্রকল্প বাস্তবায়ন করছেন। কিন্তু, পৌরবাসী জলাবদ্ধতা ছাড়াও গণশৌচাগার এবং ময়লা-আবর্জনা নিয়ে মহা দুর্ভোগে ছিলো।
চকরিয়া পৌরসভার মেয়র মো. আলমগীর চৌধুরী বলেন, পৌরসভাকে আবর্জনামুক্ত করে পরিবেশ বান্ধব করতে গার্ভেজ ডাম্পিং স্টেশনের শুভ সূচনা হলো। অচিরেই গণশৌচাগারের কাজও শুরু হবে।

Share