নিজস্ব সংবাদদাতা, আনোয়ারা

আনোয়ারায় রায়পুর ওয়াহেদ আলী চৌধুরী বাজার থেকে গহিরা দোভাষীর বাজার পর্যন্ত সড়কটির বেহাল দশায় যাতায়াতে লোকজন দুর্ভোগ পোহাচ্ছে। ঝড়-বৃষ্টিতে শিক্ষার্থীসহ স্থানীয় জনগণের বিড়ম্বনা বাড়ছে। সড়কটি জরুরি ভিত্তিতে সংস্কার করা প্রয়োজন। অন্যথায় মাটির সাথে একাকার হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এলাকাবাসী যাতায়াতের সুবিধার্থে সড়কটি জরুরি ভিত্তিতে মেরামতে এগিয়ে আসার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট আহবান জানিয়েছেন। জানা যায়, উপজেলার রায়পুর ওয়াহেদ আলী বাজার থেকে দোভাষীর বাজার সড়কটি চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। সড়কটি রায়পুর ইউনিয়নের অন্যতম প্রধান সড়ক। ২ বছর ধরে সংস্কার নেই। বহু গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। প্রতিদিন এ সড়ক দিয়ে পশ্চিম রায়পুর, গহিরা, খোদ্দ গহিরা, দক্ষিণ গহিরা, উত্তর গহিরার লোকজন যাতায়াত করে থাকে। জন গুরুত্বপূর্ণ হলেও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ দ্রুত সংস্কারের পদক্ষেপ নিতে দেখা যাচ্ছে না। রায়পুর ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়, গাউছিয়া হাশেমীয়া দাখিল মাদ্রাসা, রায়পুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, গহিরা উপকূলীয় আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এ সড়ক দিয়ে যাতায়াত করে। তা ছাড়া ওয়াহেদ আলী চৌধুরী বাজার, গহিরা দোভাষীর বাজারের লোকজনও যাতায়াত করে থাকে। সড়কটির অস্তিত্ব হুমকির মুখে। না দেখলে মনে হবে না এটা সড়ক কিনা! সড়কের গর্তে পানি জমে কূপের সৃষ্টি হয়। বিশেষ করে বর্ষাকালে সড়কের গর্তে হাঁটু পরিমাণ পানি জমে থাকায় স্কুল শিক্ষার্থী ও জনগণ যাতায়াতে বিপাকে পড়ে। ২০১২ সালে সড়কটির কার্পেটিং করা হলেও আর সংস্কার করা হয়নি। ফলে সংস্কারের অভাবে খানাখন্দে ভরে গেছে। জোয়ারের পানি ও বৃষ্টির কারণে দুই পাশের মাঠি সরে গিয়ে সড়কে একাধিক গর্ত তৈরি হয়েছে। সড়কের ১ কি.মি অংশের সম্পূর্ণ কার্পেটিং উঠে গেছে। এতে ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে কিছু ইট বালির কাজ করলেও এখনও বিপদজ্জনক অবস্থায় আছে এটি। সিএনজি চালকরা জানায়, এই সড়ক দিয়ে ঝুঁকি নিয়েই গাড়ি চালাতে হচ্ছে। যাতায়াতে গাড়ি বিকল হয়ে পড়ে। প্রতিনিয়ত ছোটখাটো দুর্ঘটনা লেগে থাকে। জরুরি ভিত্তিতে সড়কটি মেরামত করা দরকার। গাউছিয়া হাশেমীয়া দাখিল মাদ্রাসার সুপার মৌলানা সোলাইমান আনসারি বলেন- শিক্ষার্থীরা কষ্ট করে যাতায়াত করছে। বর্ষাকালে ছাত্রীরাই সবচেয়ে বিড়ম্বনায় পড়ে। রায়পুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জানে আলম জানান, মেরমতের বরাদ্দ না থাকলেও পরিষদের পক্ষ থেকে সড়কটি মেরামতের উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে। জনদুর্ভোগ লাঘবে সড়কটি দ্রুত সংস্কার করা হবে।

Share