ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হ্যাকিংয়ে রাশিয়াকে অভিযুক্ত করে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থাগুলো যে প্রতিবেদনে প্রকাশ করেছে, তা ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছে ক্রেমলিন।
হ্যাকিংয়ের অভিযোগ ‘অলীক বস্তুর’ সন্ধানে নামার মতো অবস্থা বলে উল্লেখ করেছে রাশিয়া। মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে সাইবার হামলা চালানোর বিষয়ে গোয়েন্দা প্রতিবেদনের বিরুদ্ধে এই প্রথম আনুষ্ঠানিক প্রতিক্রিয়া জানালো রাশিয়া।
রয়টার্স অনলাইনের এক খবরে মঙ্গলবার এ তথ্য জানানো হয়েছে।
গত সপ্তাহে মার্কিন গোয়েন্দারা হ্যাকিংয়ের প্রতিবেদন প্রকাশ করে। এতে দাবি করা হয়, হিলারি ক্লিনটনকে হারিয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে জেতাতে পুতিনের নির্দেশে রাশিয়া থেকে নির্বাচন প্রক্রিয়ায় সাইবার হামলা চালানো হয়েছে। এ অভিযোগ এর আগে ট্রাম্প উড়িয়ে দিলেও শেষ পর্যন্ত গোয়েন্দা প্রতিবেদন বিশ্বাস করেছেন তিনি। তবে পুতিনের নির্দেশেই সাইবার হামলা হয়েছে বলে ট্রাম্প বিশ্বাস করেন কি না, তা এখনো পরিষ্কার নয়। পুতিনের সঙ্গে সুসম্পর্ক স্থাপনের পক্ষে ঝুঁকে আছেন ট্রাম্প।
ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেশকভ বলেছেন, সাইবার হামলায় রাশিয়ার কর্মকর্তাদের জড়িত থাকার নতুন কোনো প্রমাণ মার্কিন গোয়েন্দা প্রতিবেদনে নেই। কনফারেন্স কলে সাংবাদিকদের পেশকভ বলেন, ‘এসব অভিযোগ শুনতে শুনতে আমরা সত্যিই ক্লান্ত হয়ে পড়ছি। প্রকৃতপক্ষে এটি (যুক্তরাষ্ট্রের) এক ধরনের অলীক বস্তুর সন্ধানে নামার মতো অবস্থা।’
পেশকভের কণ্ঠে ট্রাম্পের বক্তব্য প্রতিধ্বনিত হয়েছে। এর আগে এ বিষয়ে নিউ ইয়র্ক টাইমসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প বলেছিলেন, ‘এটি রাজনৈতিকভাবে অলীক বস্তুর সন্ধান’। পেশকভ আরো বলেন, ‘জনসমক্ষে প্রকাশিত গোয়েন্দা প্রতিবেদনে এমন কোনো নতুন তথ্য নেই, যা নিয়ে আমরা মন্তব্য করতে পারি।’